৩য় দিন:চতুর্দশ জাতীয় শিশু কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব

Check for details

জার্মান-বাংলা ডেস্ক:২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ উৎসবের দ্বিতীয় দিনে একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে বিকাল ৫টা থেকে দ্বিজেন্দ্রনাথ ব্যানার্জী’র রচনায় কামরুল্লাহ সরকারের নির্দেশনায় ভোর হলো নাট্যদল রাজশাহী’র পরিবেশনায় নাটক প্রসন্ন প্রকৃতি, কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে দিলীপ কুমার গৌর এর নাট্যরুপ ও নির্দেশনায় নাট্য নিকেতন সিরাজগঞ্জের পরিবেশনায় নাটক ছুটি, মোঃ সোহেল রানা এর রচনা ও নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল রাঙ্গামাটি এর পরিবেশনায় নাটক তারুণ্যের আহ্বান, সম্বিত সাহা এর রচনা ও নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি নাট্যদল জয়পুরহাট এর পরিবেশনায় নাটক পাখির ডানা মঞ্চস্থ হয়।

স্টুডিও থিয়েটার হলে বিকাল ৫টা থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি জয়পুরহাট, চুয়াডাঙ্গা, রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, রাঙ্গামাটি, মাদারীপুর, শরিয়তপুর ও দিনাজপুর এর পরিবেশনায় আবৃত্তি, একক অভিনয় ও ৭ই মার্চের ভাষণ এবং দিজেন্দ্রনাথ ব্যানার্জী এর রচনায় ও সম্মিলিত নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল নওগাঁ মঞ্চস্থ করে নাটক চিড়িয়াখানা। জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্রে বিকাল ৫টা থেকে রেবা সাহা ও এস এম সেলিম এর রচনায় এস এম সেলিম এর নির্দেশনায় আলমডাঙ্গা কলাকেন্দ্র চুয়াডাঙ্গা পরিবেশন করে নাটক বাল্যবিবাহ, স্বপন মাহামুদ এর রচনায় সানজিদা ইসলাম ডলি এর নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল মাদারীপুর পরিবেশন করে নাটক আলোর পথে, রফিকুল হকের রচনায় বিভাষ রায়ের সির্দেশনায় ভোর হলো শিশু কিশোর (ইঙ্গিত থিয়েটার) নাটোরের পরিবেশনায় নাটক বই বই হইচই এবং আনিসুর রহমানের রচনায় সুজাতা রাণী দে এর নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল শরিয়তপুর পরিবেশন করে নাটক আমাদের মীনা। জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বিকাল ৫টা থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি সিরাজগঞ্জ, জয়পুরহাট, চুয়াডাঙ্গা, রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, রাঙ্গামাটি, মাদারীপুর ও শরিয়তপুর পরিবেশন করে সমবেত সঙ্গীত, একক সঙ্গীত ও সমবেত নৃত্য।

এছাড়াও একাডেমির জাতীয় চিত্রশালার চিত্রকলা স্টুডিওতে প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪টা জেলা থেকে আগত শিশুদের অংশগ্রহণে চিত্রাংকন এবং একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা প্রাঙ্গণে শিশুদের অংশগ্রহণে বঙ্গবন্ধু পুষ্পকানন নির্মাণ এবং একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় প্রতিদিন বিকাল ৪টা থেকে ৪.৪৫টা জেলা থেকে আগত শিশুদের নিয়ে সমাবেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী ও মঞ্চকুড়ি পদক প্রদান করা হয় ও রাত ৯টা থেকে ৯.৩০টা বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

উৎসবের ৩য় দিনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরেণ্য নাট্য ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, হাসান ইমাম, কে এস ফিরোজ, নাদিয়া আহমেদ, শারমিন লাকী, মাহিদুল ইসলাম, অভিজিৎ সেন গুপ্ত , মাসুম আজিজ, বৃন্দাবন দাস, রোজী সিদ্দিকী, তামান্না রহমান, দীপা খন্দকার, মুনমুন আহমেদ ও মীর বরকত । অতিথিবৃন্দ উৎসবে আগত শিশুদের সনদপত্র প্রদান করবেন ও শিশুদের উদ্দেশ্যে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন।

আগামীকাল ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শিশু উৎসবের চতুর্থ দিন একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে বিকাল ৫টা থেকে ম. নিজামের রচনায় অজয় দাস এর নির্দেশনায় স্বদেশ নাট্যাঙ্গন রাজবাড়ী পরিবেশন করবে নাটক ময়না মেয়ের বিয়ে, ড. সেলিম আলদীন রচিত অনিক সাহা নির্দেশিত জেলা শিল্পকলা একাডেমি নেত্রকোনা পরিবেশন করবে নাটক জন্ডিস ও বিবিধ বেলুণ, তারেকুজ্জামান তারেক এর রচনায় ও নির্দেশনায় আমাদের থিয়েটার দিনাজপুর পরিবেশন করবে নাটক চোখ, আসাদুল ইসলামের রচনায় মেহেদী হাসান সোহাগের নির্দেশনায় সোনালী থিয়েটার সেতাবগঞ্জ দিনাজপুর পরিবেশন করবে নাটক নরমেধ।
একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে বিকাল ৫টা থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি পিরোজপুর, ময়মনসিংহ, ঝালকাঠি, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, নেত্রকোনা, রাজবাড়ী ও কুমিল্লা’র শিশুদল পরিবেশন করবে আবৃত্তি, একক অভিনয় ও ৭ই মার্চের ভাষণ এবং এস এম মিজানুর রহমানের রচনায় খোকন হাসান চাঁদ এর নির্দেশনায় সন্ধান লিটল থিয়েটার ঢাকা পরিবেশন করবে নাটক হনন ও শেখ আবু মোহাম্মদ জুবায়ের জনি’র রচনায় তাপস ভট্টাচার্যের নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল পিরোজপুর পরিবেশন করবে নাটক শেখ মুজিব আমার পিতা।

একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে বিকাল ৫টা থেকে মিহির হারুনের রচনা ও নির্দেশনায় শিশু থিয়েটার মুক্তাগাথা ময়মনসিংহ পরিবেশন করবে নাটক খোকার গল্প, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে শাহজাহান চৌধুরী’র নাট্য রুপান্তর ও নির্দেশনায় দ্যুতি: ফয়জুন্নেসা স্কূল নাট্য ও সাংস্কৃতিক দল কুমিল্লা পরিবেশন করবে নাটক ছুটি, আমজাদ হোসেনের রচনায় দিপংকর সাহা মানিক এর নির্দেশনায় প্রগতি থিয়েটার পার্বতীপুর দিনাজপুর পরিবেশন করবে নাটক জয়বাংলা একটি শ্লোগান, শুভংকর চক্রবর্তীর রচনায় আবুল মনসুর এর নির্দেশনায় অনসাম্বল খিয়েটার ময়মনসিংহ পরিবেশন করবে নাটক মরা এবং আজিজুল হক মোল্লা’র রচনা ও নির্দেশনায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল লালমনিরহাট পরিবেশন করবে নাটক গৃহস্থের একদিন।

একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বিকাল ৫টা থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি পিরোজপুর, ময়মনসিংহ, ঝালকাঠি, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, নেত্রকোনা, রাজবাড়ী, কুমিল্লা ও ঢাকা পরিবেশন করবে সমবেত সঙ্গীত, একক সঙ্গীত ও সমবেত নৃত্য।

এছাড়াও একাডেমির জাতীয় চিত্রশালার চিত্রকলা স্টুডিওতে প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪টা জেলা থেকে আগত শিশুদের অংশগ্রহণে চিত্রাংকন এবং একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা প্রাঙ্গণে শিশুদের অংশগ্রহণে বঙ্গবন্ধু পুষ্পকানন নির্মাণ এবং একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় প্রতিদিন বিকাল ৪টা থেকে ৪.৪৫টা জেলা থেকে আগত শিশুদের নিয়ে সমাবেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী ও মঞ্চকুড়ি পদক প্রদান করা হয় ও রাত ৯টা থেকে ৯.৩০টা বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বিকাল ৫টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে উদ্বোধন হলো শিশু কিশোর নাট্য ও বিভিন্ন শাখার শিশু শিল্পীদের অংশগ্রহণে দেশের সবচেয়ে বড় আয়োজন ‘চতুর্দশ জাতীয় শিশু কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯’। সহস্রাধিক শিশুর অংশগ্রহণে উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। এর আগে জাতীয় নাট্যশালা প্রাঙ্গণে অতিথিরা বেলুন উড়িয়ে নয় দিনব্যাপী উৎসবের উদ্বোধন করেন। একইসাথে শিল্পী মোস্তাফা মনোয়ার রং তুলির আঁচড়ে শিশু চিত্রাঙ্কনের উদ্বোধন করেন।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও পিপলস থিয়েটার এসোসিয়েশন’র যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে শিশুদের অংশগ্রহণে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ‘চতুর্দশ জাতীয় শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯’। ৬৪ জেলার সাংস্কৃতিক দল এবং ৯৫টি শিশু নাট্য সংগঠনের দশ হাজারেরও বেশি শিশুর অংশগ্রহণে ২০-২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উৎসবে একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা,জাতীয় চিত্রশালা, জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তন ও একাডেমি প্রাঙ্গণসহ প্রতিদিন ৮টি ভেন্যুতে ৯টি জেলার ৮৫টি পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

Facebook Comments