1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman Ruma
  3. anikbd@germanbangla24.com : Editor : Editor
  4. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  5. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
গাজীপুরে লকডাউন অমান্য করে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দরিদ্র কর্মহীন ৩’শ পরিবারের মাঝে নৌবাহিনীর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ পৃথক পৃথক জায়গায় করোনার উপসর্গ নিয়ে আরো ৯ জনের মৃত্যু করোনার ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম: তিন সাংবাদিক লাঞ্ছিত ঈশ্বরগঞ্জে খেলা নিয়ে সংঘর্ষ : আহত ৫ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তত্ত্বাবধানে সাতক্ষীরায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করোনা রুখতে সুবর্ণচরে যুবদল-ছাত্রদলের জরুরী পণ্য বিতরণ ও মাইকিং মালয়েশিয়ায় অসহায় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য (বিএসইউএম) জরুরি তহবিল সংগ্রহ শৈলকুপায় সহস্রাধিক দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চলমান যুদ্ধে সাধারণ জনগণের পাশে ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার




সড়ক দুর্ঘটনায় মামলা হচ্ছে, নিহত ৪ শিক্ষার্থীর দাফন সম্পন্ন

মশিউর রহমান কাউসার,গৌরীপুর(ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১ মার্চ, ২০২০
  • ১৫৬ বার পড়া হয়েছে
Check for details

সড়ক দুর্ঘটনায় মেধাবী শিক্ষার্থী তিথি মৃত্যুর ঘটনার শোক না কাটতেই ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সর্বত্রই বিরাজ করছে আরেক শোকের ছায়া।শিক্ষার্থীদের আনন্দ ভ্রমণ পরিণত হলো বিষাদে। ট্রাক ও পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে ঝরলো চার শিক্ষার্থীর প্রাণ। ২৯ ফেব্রুয়ারি রাত ৯টার দিকে নেত্রকোণা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার বিরিশিরি সড়কে কালা মার্কেট এলাকায় এ মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। এতে আহত হন আরো ১০জন শিক্ষার্থী।

নিহতরা হলেন-ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার হাজী আমির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী শালিহর গ্রামের আবুল হকের ছেলে আশরাফুল আলম(১৫), ৯ম শ্রেণির ছাত্র রমজান আলী খানের ছেলে রাকিবুল ইসলাম(১৪), এতিমখানার শিশু ছাত্র মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে ইয়াছিন মিয়া (১১) ও শালীহর এম এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থী তারাকান্দা উপজেলা বিসকা গ্রামের ছমির উদ্দিনের ছেলে মাহাবুল ইসলাম (১৬)।
আজ ১ মার্চ (রবিবার) বেলা ১১টায় হাজী আমির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নিহত চার শিক্ষার্থীর জানাযার নামাজ একসঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় শত শত লোক অংশগ্রহণ করেন।

এদিকে সড়ক দুর্ঘটনায় উল্লেখিত চার শিক্ষার্থীর মৃত্যুর খবরে ঘটনার দিন রাত থেকেই গৌরীপুরে সর্বত্রই শোকেরা ছায়া বিরাজ করতে শুরু করে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে চারজনের মরদেহ রাত ২টার দিকে স্থানীয় হাজী আমির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে রাখা হলে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। নিহদের পরিবারের লোকজনের আহাজারিতে আকাশ ভারী হয়ে ওঠে। এ সময় বার বার মূর্চা যান নিহতের পরিবারের সদস্যদের অনেকেই। তাঁদের সাথে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন স্থানীয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। শোকে স্তব্ধ হয়ে যায় গৌরীপুর। কেউ এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না।

ময়মনসিংহ-৩ গৌরীপুর আসনের স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ গভীর শোক প্রকাশ করে জানান, দুর্ঘটনার খবর শুনার পর তিনি সংশ্লিষ্ট এলাকার প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের হতাহতদের উদ্ধারের জন্য নির্দেশ দেন এবং ঘটনাস্থলে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স প্রেরণ করেন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়েও আহতদের খোঁজ খবর নেন তিনি।

গৌরীপুর উপজেলার ২নং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন জানান, এ মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চার শিক্ষার্থীর জানাযা নামাজ শেষে তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে দুর্গাপুর থানায় রওনা হয়েছেন তিনি। সেখানে এ ঘটনায় মামলা দায়ের করবেন বলে জানান তিনি।

গৌরীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজ সুলতান জনি জানান, এমন মৃত্যু কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না গৌরীপুরবাসী। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সরকারের পাশাপাশি জনগণকেও সচেতন হতে হবে। যেন আর কোনো প্রাণ অকালে ঝরে না যায়।

তিনি বলেন, পরীক্ষা শেষে উল্লেখিত দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় অন্য প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৪০ জন শিক্ষার্থী শনিবার সকালে দুইটি পিকআপ ভ্যানে চড়ে দুর্গাপুর আনন্দভ্রমণে যায়। ভ্রমণ শেষে ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার হয় তারা।

তিনি আরো জানান, আনন্দ ভ্রমণে যাওয়ার সময় সকালে গৌরীপুরে আমার সাথে দেখা হয় শিক্ষার্থীদের। এসময় মোবাইলে সেলফি তুলে ফেইসবুকে আপলোড করে তারা। পরে এদিন রাত ১০টার দিকে তিনি দুর্ঘটনার খবর শুনতে পান। দুর্ঘটনার খবর শুনে স্থানীয় এমপির নির্দেশে ঘটনাস্থলে অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে গিয়ে পুলিশের সহযোগিতায় হতাহতাদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

হাজী আমির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক খায়রুল ইসলাম খান ও এমএ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসার সহকারি শিক্ষক কাজী ফিরোজ আহমেদ গভীর শোক প্রকাশ করে জানান, শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ না জানিয়ে ও কোন অনুমতি না নিয়েই আনন্দ ভ্রমণে গিয়েছিল। যদি আনন্দ ভ্রমণের বিষয়টি জানতেন তাহলে পিকআপ ভ্যানে করে শিক্ষার্থীদের আনন্দ ভ্রমণের ক্ষেত্রে বাঁধা দিতেন বলে জানান ওই দুই শিক্ষক।

তারা বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত দাখিল পরীক্ষার্থী শালিহর গ্রামের মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে আল আমিন (১৫) আশংকাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিতিৎসাধীন রয়েছে।

গৌরীপুর থানার ওসি মো. বোরহান উদ্দিন এ সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়ে সাংবাদিকদের নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details