1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : germanbangla24.com : germanbangla24.com
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান আওয়ামী লীগের আয়োজনে “স্বপ্নের পদ্মা সেতু ও শেখহাসিনা শীর্ষক আলোচনা সভা” মালয়েশিয়ায় সরকারের কড়া বিধিনিষেধের মাঝেও দূতাবাসের পাসপোর্ট বিতরন জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী “ইয়াসমিন লাবণ্য” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী আশিকুর রহমান দ্বিতীয় মেয়াদের লকডাউন জারি করলো জার্মানি বাগেরহাটে দেড়কেজি গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক জনপ্রিয় অভিনেতা আব্দুল কাদেরের মৃত্যু সুষ্ঠ ধারার রাজনীতি চায় লেবানন আ’লীগের শাখা কমিটির নেতৃবৃন্দ জার্মানবাংলা২৪ ডটকম ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’তে এবার আসছেন কণ্ঠশিল্পী মৌমিতা হক সেঁজুতি প্রখ্যাত নাট্যকার মান্নান হীরা মারা গেছেন

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

জার্মানবাংলা অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২০
Check for details

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাম্প্রতিক বিশ্বের অবস্থা বিবেচনা করে দেশের সব নাগরিককে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য কঠোর পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে আজ ১৯ ডিসেম্বর সোমবার প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশেই করোনা পরিস্থিতির অবনমন হয়েছে। কোনো কোনো দেশ শক্ত অবস্থান নিয়েছে। আমাদেরও এসব বিষয়ে আরো কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা উল্লেখ করে সচিব সাংবাদিকদের বলেন, ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’—এই নীতি কঠোরভাবে পালনের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের এ বিষয়ে আরো তৎপর হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।’

ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম আরো বলেন, ‘আজকের বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভ্যাকসিন আমদানি ও প্রয়োগের বিষয়টি তুলে ধরেন। আগামী জুন মাসের মধ্যে সাড়ে চার কোটি মানুষ ভ্যাকসিন পাবে। বর্তমানে ইপিআই কার্যক্রম জোরদার করা হচ্ছে। যারা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করবেন, তাঁদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।’ দক্ষ লোক দিয়ে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে বলেও জানান সচিব।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব আরো বলেন, ‘জানুয়ারির শেষে বা ফেব্রুয়ারির প্রথমে দেশে ভ্যাকসিন আসবে। এখন তিন কোটি এবং মে থেকে জুনের মধ্যে আরো ছয় কোটি ডোজ আসবে। একজন ব্যক্তি দুই ডোজ করে ভ্যাকসিন পাবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত যেকোনো ভ্যাকসিন দেশে আসতে পারে।’

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details