1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman Ruma
  3. anikbd@germanbangla24.com : Editor : Editor
  4. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  5. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জাতিসংঘ সদর দপ্তরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির সামনে দাঁড়িয়ে বোন ও মেয়েকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি ভাষা দিবসে বেনাপোল সীমান্তে দুই বাংলার মিলন মেলা গ্রন্থমেলায় তাজবীর সজীবের দুটি বই ‘গণমাধ্যমের গন্তব্য’ ও `অধিকার’ বাগআঁচড়ায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বাঁশবাড়ীয়ায় ছাত্রলীগের মতবিনিময় সভা গাইবান্ধায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত শিক্ষিত যুবকদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে ইউএনডিপির সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডুয়েটে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রাজশাহীতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস পালিত




সাতক্ষীরায় মাহেন্দ্র উল্টে প্রাণ গেল চালকের

হাসান শাহরিয়া রিপন, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১০২ বার পড়া হয়েছে
Check for details

আজ সোমবার সকালের দিকে সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কে সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটার হারুন-অর-রশিদ কলেজ এলাকায় মাহেন্দ্র উল্টে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

নিহত ব্যক্তি পাটকেলঘাটা থানার নগরঘাটা এলাকার মৃত আছির মোড়লের ছেলে আব্দুস সামাদ মোড়ল (৫৫)। তিনি পেশায় মাহেন্দ্র চালক।

হারুন-অর-রশিদ কলেজ মোড় এলাকার বাসিন্দা সেলিম হোসেন জানান, সাতক্ষীরা থেকে যাত্রী না নিয়ে তিনি একা পাটকেলঘাটায় ফিরছিলেন। পথিমধ্যে বিনেরপোতা বাইপাস সড়কের সামনে ট্রাফিক পুলিশ তাকে দাঁড়ানোর সিগন্যাল দেয়। তবে আব্দুস সামাদ সিগন্যাল অমান্য করে মাহেন্দ্র দ্রুত চালিয়ে পাটকেলঘাটার দিকে চলে আসেন। এ সময়
ট্রাফিক পুলিশ তাকে পেছন থেকে ধাওয়া করে। দ্রুত গতিতে পালাতে গিয়ে হারুন-অর-রশিদ কলেজের পাশে এসে রাস্তার মধ্যে মাহেন্দ্রটি উল্টে যায়। এতে মাহেন্দ্রর নিচে চাপা পড়ে চালক সামাদ ঘটনাস্থলেই মারা যান। পাটকেলঘাটা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াহিদ মোর্শেদ বলেন, স্থানীয়রা বলছেন পুলিশের ধাওয়া খেয়ে মাহেন্দ্র উল্টে চাপা পড়ে নিহত হয়েছেন সামাদ। ঘটনাস্থলে রয়েছি, তদন্ত না করে এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে না। এদিকে সাতক্ষীরার ট্রাফিক ইন্সপেক্টর কামরুল ইসলাম বলেন, বিনেরপোতা বাইপাস সড়ক এলাকায় ট্রাফিকের কোনো সদস্য ছিল না। কারা ধাওয়া করেছে আমার জানা নেই। আর মাহেন্দ্র চালক সিগন্যাল অমান্য না করলে এমন দুর্ঘটনা হয়তো ঘটতো না।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details