1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
লেবাননে প্রবাসী অধিকার পরিষদের ইফতার মাহফিল বেগম জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেবে সরকার : অ্যাটর্নি জেনারেল করোনা : ভারতে শনাক্ত ২ কোটি ছাড়াল করোনা : বিধিনিষেধ আবারও বাড়ল, চলবে না দূরপাল্লার বাস অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফয়সাল ও সম্পাদক ফারুক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল জামালপুরে নতুন কমিটি গঠন জেলহাজতে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “আঁখি হালদার” আয়েবপিসি’র কার্যনির্বাহী পরিষদের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত জার্মানবাংলা’র ”প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি ”শিরীন আলম”

লিবিয়ায় নৌকাডুবিতে শতাধিক অভিবাসীর মৃত্যুর আশঙ্কা

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২৯ জুন, ২০১৮
Check for details

জার্মানবাংলা২৪ ডেস্ক: লিবিয়া উপকূলে অভিবাসী ও শরণার্থীবাহী একটি নৌকাডুবিতে শতাধিক মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কার কথা জানিয়েছে সেদেশের কোস্টগার্ড। অভিবাসন প্রত্যাশীদের জন্য বিভিন্ন দেশে আশ্রয় কেন্দ্র গতে তুলতে ইউরোপীয় নেতাদের সমঝোতার দিনেই নতুন করে নৌকাডুবির খবর প্রকাশ পেলো। শুক্রবার নৌকাডুববিতে এই প্রাণহানির খবর দিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা। এসব অভিবাসীরা কনোন দেশের নাগরিক সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

দুর্বল কেন্দ্রীয় সরকার আর ইতালির সঙ্গে সীমান্ত থাকার সুযোগে বিপদজনকভাবে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউইউরোপে প্রবেশ করতে এই উপকূল ব্যবহার করতে পছন্দ করে শরণার্থী ও অবৈধি অভিবাসন প্রার্থীরা। গত বছর এই পথ পাড়ি দিয়ে ইতালি ও অন্য ইউরোপীয় দেশগুলোতে প্রায় এক লাখ ২০ হাজার শরণার্থী পৌঁছেছে। এই পথ ব্যবহার করতে গিয়ে চলতি বছরের জুনের প্রথম দিকে তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকাডুবে নিহত হয় প্রায় ১১২ শরণার্থী ও অভিবাসন প্রত্যাশী। ফেব্রুয়ারিতে লিবিয়ার পশ্চিম উপকূলে নৌকাডুবে প্রায় ৯০ জন নিহত হয়।

ভূমধ্যসাগরকে এরইমধ্যে সবচেয়ে প্রাণঘাতী সীমান্ত আখ্যা দিয়েছে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন। সংস্থাটির হিসেবে গত বছর এই পথ দিয়ে উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপে যেতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছে ৩ হাজার ১১৬ জন।

দীর্ঘ সময় বিতর্ক শেষে বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে এক বৈঠকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতাদের ঐক্যমত্যের খবরের মধ্যেই লিবিয়া উপকূলে এই প্রাণ হারানোর খবর পাওয়া গেল। প্রায় ১০ ঘণ্টা আলোচনা শেষে বিভিন্ন দেশে অভিবাসন কেন্দ্র গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেন তারা। তবে ইইউ এর উদ্যোগের সমালোচনা করেছে শরণার্থীদের নিয়ে কাজ করা মানবাধিকার গ্রুপ ডক্টরস উইদাউট বর্ডার। তার বলছে, এই সমঝোতার লক্ষ্য হলো শরণার্থীদের ইউরোপের দোরগোড়ায় আটকে দেওয়া।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details