1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman Ruma
  3. anikbd@germanbangla24.com : Editor : Editor
  4. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  5. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :

লাদাখে যুদ্ধাবস্থা : প্যাংগং চাইছে চীন

জার্মান-বাংলা অনলাইন
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০
Check for details

লাদাখে ভারতীয় বাহিনীর গতিবিধির ওপর নজর রাখতে ড্রোন ব্যবহার করছে চীনের সেনাবাহিনী। তবে ড্রোন নজরদারিতে পিছিয়ে নেই ভারতও। ইসরাইলের তৈরি বিশেষ ড্রোন ‘হেরন’ মোতায়েন করেছে নয়াদিল্লি।

চীন-ভারতের মধ্যে চলমান উত্তেজনা প্রশমনের খবর প্রকাশ হলেও বাস্তবে লাদাখে যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে।
উত্তেজনার মধ্যেই লাদাখে চীনা সেনারা আবারও ভারতীয় ভূখণ্ড দখলে নিয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। এদিকে লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় নতুন কাঠামো নির্মাণ অবিলম্বে চীনকে বন্ধ করার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভারত।

গালওয়ানকে আগেই নিজেদের এলাকা বলে দাবি করেছে চীন। এবার প্যাংগং সো’র দাবিও জোরালো করতে মরিয়া চীন। গালওয়ানে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই প্যাংগং লেকের পাড়ে হেলিপ্যাড তৈরি করছে চীনা সেনারা। পাশাপাশি বাড়িয়েছে সেনা সংখ্যাও।

এদিকে, এক সেনা কর্মকর্তার বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানায়, গত আট সপ্তাহে ওই এলাকায় বহু কাঠামো নির্মাণ করেছে চীন। এর মধ্যেই ফিঙ্গার ফোর-এ হেলিপ্যাড নির্মাণ নতুন সংযোজন।
আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, ১৫ই জুন সংঘর্ষের পর পরই ভারতের অনেক এলাকা দখল করেছে চীনা সেনারা। ফলে কয়েকশ’ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় নজরদারি বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়েছে ভারত। এছাড়া, স্যাটেলাইট ইমেজে গালওয়ানে চীনের অন্তত ১৬টি ক্যাম্পের অবস্থানের কথা জানিয়েছে এনডিটিভি।

এ পরিস্থিতিতে চীনকে হুঁশিযার করে ভারত বলেছে, লাদাখের স্থিরাবস্থা বদলের চেষ্টার পরিণাম ভুগতে হবে বেইজিংকে। পিটিআইকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন কড়া ভাষায় বক্তব্য দিয়েছেন চীনে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিসরি।

এদিকে, লাদাখ সফর শেষে দিল্লি ফিরে শনিবার ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের কাছে সীমান্ত পরিস্থিতি অবহিত করেছেন সেনাপ্রধান এম এম নরবনে।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details