1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

মালয়েশিয়ায় জেল কেটে সব হারিয়ে দেশে ফিরেছে রাকিবুল

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ২৯ আগস্ট, ২০১৮
Check for details

তরিকুল ইসলাম জেন্টু, আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি: আদমদীঘিতে রাকিবুল ইসলাম নামের এক যুববকে ভাল চাকুরি দেয়ার নাম করে মালয়েশিয়াতে নিয়ে গিয়ে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না করে বরং না খাইয়ে রেখে পুলিশে ধরিয়ে দিয়ে অসুস্থ্য অবস্থায় দেশে ফেরত পাঠিয়ে কৌশলে সাড়ে ৩ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ওই যুবকের মা শিয়ালসন গ্রামের মাসুমা বেগম বাদি হয়ে একই গ্রামের প্রবাসি কাদের তার স্ত্রী লিপি, ভাই মিজাুনর রহমান, শেফালি বেওয়া ও নাছরিনের বিরুদ্ধে আদমদীঘি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ কারিনী মোহাম্মাদ আলীর স্ত্রী মাসুমা বেগম জানান, তার ছেলে রাকিবুলকে মালয়েশিয়া নামক দেশে ভাল চাকুরি দেয়ার নাম করে বিবাদীগন পরস্পর যোগ সাজশে ২০১৮ সালের জানুয়ারী মাসে বিভিন্ন সময় ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা গ্রহণ করে। এরপর তারা মালয়েশিয়া দেশে পাঠিয়ে দিলেও কোন প্রকার কর্মসংস্থানে ব্যবস্থা না করে তারা গোপন স্থানে বসে রাখে। এর কারণে ছেলের খাবার টাকাও পাঠাতে হতো বাড়ী থেকে। কিছুদিন পর ওই দেশে থাকা বিবাদী কাদের রাকিবুলকে পুলিশে ধরিয়ে দিলে সে সাজা ভোগ করে গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় গত ১২ জুন দেশে ফিরে।

বিবাদীগণ কৌশলে মালোশিয়ায় নিয়ে গিয়ে বিপুল টাকা হাতিয়ে নিয়ে আত্মসাত করায় এখন অসহায় অবস্থায় রয়েছেন বলে মাসুমা বেগমের দাবী।

মালয়েশিয়া থেকে ফেরত আসা রাকিবুলকে বগুড়া শহীদ জিযাউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। সেখানে ২৩ দিন চিকিৎসা করানো হলেও এখনও তার শরীরের করুন অবস্থা নিয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে। রাকিবুল জানায়, ওই দেশে অর্থ সংকটে পড়ে ক্ষুদার যন্ত্রনায় ভিক্ষাবৃত্তি করতে বাধ্য হয়ে ছিলাম।

বিবাদী কাদের মালয়েশিয়া থেকে মুঠো ফোনে জানায়, তাকে কোন অবহেলা বা কর্মসংস্থান করা হয়নি এটা সত্য নয়। রাকিবুল অসুস্থতার কারনে দেশে ফেরৎ গেছেন। ঘটনা তদন্তকারি এএসআই তপন কুমার জানান, বিবাদী বিদেশে রয়েছে তা ছাড়া বাদী পক্ষের কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকায় আইনের আওতায় নেয়া সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details