1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : germanbangla24.com : germanbangla24.com
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী ”ফারজাহান রহমান শাওন” বাগেরহাটে ৭ দিনব্যাপী বই মেলা শুরু জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি, বাচিকশিল্পী “জান্নাতুল ফেরদৌসী লিজা” টিকার দ্বিতীয় ডোজ ৮ সপ্তাহ পর : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ১৪ ফেব্রুয়ারি, উপেক্ষিত ‘সুন্দরবন দিবস’ জীবননগর পৌর নির্বাচন : আচরণবিধি লঙ্ঘন ,৩ জনের সাজা জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী ”বিথী পান্ডে” বাগেরহাটে ওরিয়ন গ্রুপের বিরুদ্ধে গ্রাম্য সড়ক দখলের অভিযোগ বাগেরহাটে জুয়েলারি দোকান হতে ১০০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার চুরি জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী “সুনীল সূএধর”

ভারত-পাকিস্তান-চীন সামরিক মহড়ায় অংশ নেবে!

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০১৮
Check for details
  • ডেস্ক রিপোর্ট

প্রথমবারের মতো কোনো সামরিক মহড়ায় একসঙ্গে অংশ নিতে দেখা যাবে ভারত, পাকিস্তান ও চীনকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন নর্থ অটলান্টিক ট্রিটি অর্গানাইজেশনের (ন্যাটো) বিকল্প হিসেবে এই এসসিও গড়ে তুলেছে চীন।
চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে রাশিয়াতে অনুষ্ঠেয় বহুদেশীয় সন্ত্রাস দমন মহড়ায় অংশ নেবে দেশ তিনটি।
ভারত-পাকিস্তান-চীনসহ এ মহড়ায় অংশ নেবে মোট আটটি দেশ।
এবিপি আনন্দের খবরে জানানো হয়, চীনের নেতৃত্বাধীন সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের (এসসিও) তত্ত্বাবধানে এই যৌথ সামরিক মহড়া হতে যাচ্ছে।
বিশ্লেষকদের ভাষ্য, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন নর্থ অটলান্টিক ট্রিটি অর্গানাইজেশনের (ন্যাটো) বিকল্প হিসেবে এই এসসিও গড়ে তুলেছে চীন।
রাশিয়ার উরাল পর্বতমালার আশপাশে ওই সামরিক মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। এসসিও সদস্য-দেশগুলো এই মহড়ায় অংশ নেবে। এর মূল লক্ষ্য সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে শান্তি স্থাপন ও সন্ত্রাস দমনে সহযোগিতা বাড়ানো।
কয়েকদিন আগে বেইজিংয়ে এসসিও প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের একটি বৈঠকে অংশ নিয়ে নির্মলা সীতারমন ভারতের অংশগ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর মধ্য দিয়ে নজিরবিহীন এক ঘটনার সাক্ষী হতে যাচ্ছে তিনটি দেশ।
২০০১ সালে এসসিও তৈরি হয়। সেই সময় এর পূর্ণ সদস্য ছিল চীন, রাশিয়া, কিরঘিজস্তান, কাজাখস্তান, তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তান। পরে ভারত ও পাকিস্তানকে পূর্ণ সদস্যের মর্যাদা দেওয়া হয়।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details