1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব সখীপুরে ‘মুক্তিযুদ্ধের কবিতা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

ভারতে প্রতি ১৫ মিনিটে একটি শিশু যৌন নিগ্রহের শিকার

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮
Check for details

ভারতে প্রতি ১৫ মিনিটে একটি শিশু যৌন নিগ্রহের শিকার হয়। ভারতের বেসরকারি শিশু অধিকারসংক্রান্ত মুম্বাইভিত্তিক সংস্থা ‘ক্রাই’ বা ‘চাইল্ড রাইটস অ্যান্ড ইউ’-এর একটি সমীক্ষা প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এই তথ্য। গতকাল বৃহস্পতিবার এই সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, শিশুদের বিরুদ্ধে যৌন অপরাধ গত ১০ বছরে ৫০০ গুণ বেড়েছে। এ অপরাধের ৫০ শতাংশই ঘটছে ভারতের উত্তর প্রদেশ, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গে। এর মধ্যে ১৫ শতাংশই ঘটছে উত্তর প্রদেশে। মহারাষ্ট্র ও মধ্যপ্রদেশে এই হার যথাক্রমে ১৪ ও ১৩ শতাংশ।

ভারতের ৩৬টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে ২৫টি রাজ্যেই শিশুরা নির্যাতনের শিকার বেশি। ২০১৬ সালে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর হিসাবে বলা হয়েছিল, ওই বছরই শিশুদের নির্যাতনের হার ১৪ শতাংশ বেড়েছিল। ওই হিসাবে বলা হয়েছিল, প্রতি ১৫ মিনিটে একটি শিশু ভারতে যৌন নিগ্রহের শিকার হয়।
‘ক্রাই’ বলেছে, ২০০৬ সালে এ সংখ্যা ছিল ১৮ হাজার ৯৬৭টি। ২০১৬ সালে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে, ১ লাখ ৬ হাজার ৯৫৮টিতে। ভারতের ৩৬টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে ৫টি রাজ্যে শিশুদের নির্যাতনের হার বেশি।

পশ্চিমবঙ্গের শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারপারসন অনন্যা চক্রবর্তী সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘শিশু নিগ্রহ আগেও হতো। কিন্তু বিষয়গুলি সামনে আসত না। মা-বাবা বা অভিভাবকেরা সামাজিক লজ্জার ভয়ে বিষয়গুলো লুকিয়ে রাখতেন। এখন দিন বদলেছে। আধুনিক প্রযুক্তি যুগের আওতায় আসায় মানুষের কাছে উঠে আসছে শিশু নির্যাতনের নানা ছবি।’

অনন্যা চক্রবর্তী বলেছেন, ‘এখন আর মা-বাবার শিশু নির্যাতন নিয়ে চুপ থাকলে চলবে না, তাদেরও প্রতিবাদী হতে হবে। শিশুদের কথা মন দিয়ে শুনতে হবে।’

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details