1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
পদ্মায় ফেরিডুবি :পাটুরিয়ায় ডুবে গেছে শাহ আমানত ফেরি জার্মানিতে বিএনপি’র কর্মীসভা ‘বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার’ : এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ

বেনাপোল স্হলবন্দর দিয়ে শুল্কমুক্ত সু‌বিধায় মহিষ আমদানি হচ্ছে

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৮
Check for details

আরিফুজ্জামন আরিফ, বেনাপোল: বেনাপোল স্হলবন্দর দিয়ে দুধের চাহিদা মেটাতে ভারত থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় আরো ৭০ মহিষ আমদানি করা হয়েছে। এর আগে চলতি বছরে দু’টি চালানে ২শ’ মহিষ আমদানি করা হয়েছিল।

মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) পেট্রাপোল বন্দরে সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিকেল ৪টার দিকে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করে মহিষের চালানটি।

বেনাপোল কাস্টম হাউজের রাজস্ব কর্মকর্তা হারুনর রশিদ জানান, শুল্কমুক্ত সুবিধায় ভারত থেকে আরও ৭০টি মহিষের আমদানি করা হয়েছে। যার মূল্য ৫৭ হাজার ৫৭৫ ইউএস ডলার। জেন্টাক ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি প্রতিষ্ঠান এ মহিষগুলো আমদাবি করেছে।

আমদানি হওয়া মহিষগুলো বেনাপোল কাস্টমস হাউজ থেকে ছাড় নেওয়ার জন্য হট লাইন কার্গো ইন্টারন্যাশনাল নামে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট বিল অব এন্ট্রি দাখিল করে।

জেন্টাক ইন্টারন্যাশনালের অফিস সহকারী তরিকুল ইসলাম জানান, দেশে দুধের চাহিদা মেটাতে ভারতের হরিয়ানা প্রদেশ থেকে মহিষগুলো কেনা হয়েছে।

বাংলাদেশ মিল্কভিটা প্রতিষ্ঠানকে এসব মহিষ সরবরাহ করা হবে। দেশে দুধ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা ও কৃষি খামারে প্রজননের জন্য এসব মহিষ কাজে লাগানো হবে।

এদিকে স্থানীয়রা জানান, বৈধ পথে মহিষ আমদানিতে দেশে মাংসের চাহিদা অনেকটা পূরণ হবে। তাছাড়া বৈধ গরু ও মহিষ আমদানি হলে সীমান্ত পথে উত্তেজনা ও জীবনহানির ঘটনা অনেকটা কমে যাবে।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details