বৃহত্তর ঢাকা প্রবাসী ঐক্য ফোরাম লেবাননের আংশিক কমিটি প্রকাশ

Check for details

লেবানন প্রতিনিধি: বৃহত্তর ঢাকা প্রবাসী ঐক্য ফোরাম লেবাননের কমিটি গঠন হয়েছে। সংগঠনটির আহবায়ক কমিটির উদ্যোগে ঈদ পূনর্মিলনী অনুষ্ঠানে ৭ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটির নেতৃবৃন্দের নাম ঘোষণা করা হয় এবং অল্প সময়ে লেবাননের প্রত্যন্ত অঞ্চলের বৃহত্তর ঢাকাবাসীদের সমন্নয়ে একটি পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেয়া হয়।

নতুন কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক জসিম উদ্দীন সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আহমেদ পলাশ, সিনিয়য় সহ সভাপতি মোবারক হোসেন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জামাল হাসান, কোষাদক্ষ মারুফ মোল্লা, মহিলা সম্পাদিকা মুন্নি খন্দকার প্রীতি নির্বাচিত হন। নাম ঘোষণা করেন আহবায়ক কমিটির যুগ্ন আহবায়ক বাবুল মুন্সি।

যুগ্ন আহবায়ক বাবুল মুন্সির সভাপতিত্বে ও আহবায়ক সদস্য আব্দুল হালিমের সঞ্চালনায় সে সময় আরো উপস্থিত ছিলেন আহবায়ক কমিটি সদস্য পিন্টু মিয়া, মনির হোসেন, কবির হোসেন, জনি মিয়া, আবুল কশেম, মো. শরীফ, শাহিন মৃধ্যা, শারমিন আক্তার, কাজল মিয়া, সিরাজ মিয়া সহ অনেকে।

অনুষ্ঠানে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মাসুম বিল্লাহ।

লেবাননের সকল প্রবাসী ও দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রবাসে ঈদের আনন্দ খুব কম-ই উপভোগ করা হয়। কিন্ত আজ এই ইদ পুণর্মিলনী অনুষ্ঠানে মনে হচ্ছে যেন বাংলাদশে স্বজনদের সাথে ঈদ করছি।

অনুষ্ঠানের সভাপতি যুগ্ন আহবায়ক বাবুল মুন্সি বলেন, বৃহত্তর ঢাকা প্রবাসী ঐক্য ফোরাম সংগঠনটি অসহায় ভাইবোনদের সেবা করে যাবে। এই সংগঠনের একটি ফরম পূরণ করা মানে বিমা করার মত। সকল প্রবাসীদের তিনি কল্যান মূলক কাজে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, আমাদের সংঠনের মুল লক্ষ ও উদ্দেশ্য হল প্রবাসীদের অধিকার আদায়ে কাজ করা এবং অসুস্থ অসহায় প্রবাসীদের সেবা দেয়া। সেই সাথে অনৈতিক কাজ থেকে প্রবাসীদের বিরত রাখতে জনসচেতনা বৃদ্ধির কাজে ভুমিকা রাখবে এই বৃহত্তর ঢাকা প্রবাসী ঐক্য ফোরাম।

সাংবাদিক জসিম উদ্দীন সরকার বলেন, যেহেতু সংগঠনটি কাজ করছে অসহায় প্রবাসীদের জন্য, তাই এই সংগঠন সব সময় রাজনীতির উর্ধ্বে থেকে কাজ করবে। বিদেশের বাড়িতে কে কোন দল করে সেটা বড় কথা নয়, এখানে সবাই বাংলাদেশী। রাজনীতিতে দলমতের বিরোধ থাকে, কিন্তু একটি সামাজিক সংগঠনের কোন দল থাকে না। প্রবাসে সামাজিক সংগঠন গুলোর ধারাবাহিকতা এমনি হওয়া উচিত। রাজনীতিতে মতপার্থক্য থাকবে এটা সাভাবিক, কিন্তু সামাজিক কল্যান মূলক সংগঠন গুলোর মধ্যে কোন মতপার্থক্য থাকবেনা। কোন ভেদাভেদ থাকবেনা। আমরা সবাই বাংলাদেশী এটাই আমাদের বড় পরিচয়। তাই দলমত নির্বিশেষে সবাইকে একে অপরের পাশে দাঁড়াতে হবে।

অনুষ্ঠান শেষে এক সুস্থ বোনের কিডনীর চিকিৎসার জন্য ১লক্ষ লেবানিজ লিড়া অনুদান করা হয়। এবং ঈদ পূণর্মিলনী উপলক্ষে প্রবাসীদের পরিবেশনায় মনোঙ্গ সাংস্কৃতি ও প্রীতিভোজের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘঠে।

Facebook Comments