1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : germanbangla24.com : germanbangla24.com
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল জামালপুরে নতুন কমিটি গঠন জেলহাজতে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “আঁখি হালদার” আয়েবপিসি’র কার্যনির্বাহী পরিষদের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত জার্মানবাংলা’র ”প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি ”শিরীন আলম” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “ফারহা নাজিয়া সামি” বাংলাদেশে হরতাল প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেনঃ উচ্ছৃঙ্খলতা বন্ধ না করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয় হবে। জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “মিনহাজ দীপন“ সাকিব আল হাসানের বক্তব্যে কঠোর বিসিবি জার্মানবাংলা’র “প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি “কাইয়ুম চৌধুরী”

বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমানের ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী উদযাপন

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৯
Check for details

শামীম খাঁন, মহেশপুর প্রতিনিধি:জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী বীরশ্রেষ্ট হামিদুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদত বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। আজকের এই দিনে মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার ধলাই সীমান্তে পাক হানাদার বাহিনীর সাথে সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন তিনি। হামিদুর রহমান ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার খর্দ্দ খালিশপুর গ্রামের মৃত আক্কাছ আলীর সন্তান। মহান মুক্তি যুদ্ধ শুরু হলে হামিদুর রহমান মুক্তিযুদ্ধে যোগ দেন।

জানা যায় মৌলভীবাজার জেলার ধলাইতে ছিল পাক বাহিনীর শক্ত ঘাঁটি। কৌশলগত দিক দিয়ে এ ঘাঁটি দখল জরুরি হয়ে পড়ে মুক্তি বাহিনীর জন্য। মুক্তি বাহিনী পাক সেনা ঘাটি আক্রমন করে দখল নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। ২৮ অক্টোবর ধলাই পাক সেনা ঘাঁটি আক্রমন করে মুক্তি বাহিনী। তুমুল যুদ্ধ শুরু হয়। দুটি মেশিন গান পোষ্ট থেকে তুমুল গুলি বর্ষণ করতে থাকে পাক সেনারা। মেশিনগান পোষ্ট ধ্বংসের দায়িত্ব্য পড়ে হামিদুর রহমানের উপর। এ বীর এগিয়ে যান। ধ্বংস করেন মেশিনগান পোষ্ট। মুক্তি বাহিনীর দখলে আসে পাক সেনাঘাঁটি। এসময় শত্রুর গুলিতে তিনি শাহাদাৎ বরণ করেন। তার সহযোদ্ধাগণ মরদেহ ভারতে নিয়ে ত্রিপুরার আমবাশা এলাকায় সমাহিত করেন। দেশ স্বাধীনের পর বাংলাদেশ সরকার মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বীরশ্রেষ্ঠ খেতাব দেয় হামিদুর রহমানকে। ২০০৭ ইং সালে এ বীরের দেহাবশেষ ভারত থেকে দেশে ফিরিয়ে এনে ঢাকার মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবি কবরস্থানে পুনরায় সমাহিত করা হয়েছে।

তার নামে ঝিনাইদহের খালিশপুরে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সরকারি কলেজ, লাইব্রেরী ও জাদুঘর এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়। গ্রামে দেড় কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা রয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে ৮ শতক জমি কেনা হয়। তারা এ জমি সরকারকে দান করছেন। গ্রাবাসীর দাবী এ জমিতে হামিদুর রহমানের নামে একটি হাসপাতাল নির্মানের। খর্দ্দ খালিশপুর গ্রামের নাম বদল করে হামিদনগর করলেও সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হয়নি মানুষ সেই খর্দ্দখালিশপুর বলেও জানে। বীর শ্রেষ্ঠের গ্রামবাসীর এ সরকারের কাছে প্রত্যাশা অনেক। বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমানের ভাইপো হাফিজুর রহমান সরকারি ভাবে শাহাদাৎ বার্ষিকী পালনের দাবি জানান।
ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কাছে আমি মহেশপুর উপজেলার কৃতি সন্তান হিসেবে আপনার কাছে একটি দাবি রাখছি। বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমানের জাদুঘরের পাশে ইকো পার্ক নির্মাণ করা হোক। যেখানে এসে দর্শনার্থীরা তার সম্পর্কে, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে জানতে পারবে

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details