1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : germanbangla24.com : germanbangla24.com
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান আওয়ামী লীগের আয়োজনে “স্বপ্নের পদ্মা সেতু ও শেখহাসিনা শীর্ষক আলোচনা সভা” মালয়েশিয়ায় সরকারের কড়া বিধিনিষেধের মাঝেও দূতাবাসের পাসপোর্ট বিতরন জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী “ইয়াসমিন লাবণ্য” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী আশিকুর রহমান দ্বিতীয় মেয়াদের লকডাউন জারি করলো জার্মানি বাগেরহাটে দেড়কেজি গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক জনপ্রিয় অভিনেতা আব্দুল কাদেরের মৃত্যু সুষ্ঠ ধারার রাজনীতি চায় লেবানন আ’লীগের শাখা কমিটির নেতৃবৃন্দ জার্মানবাংলা২৪ ডটকম ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’তে এবার আসছেন কণ্ঠশিল্পী মৌমিতা হক সেঁজুতি প্রখ্যাত নাট্যকার মান্নান হীরা মারা গেছেন

বাগেরহাটে দরিদ্র ভ্যান চালকের সাথে প্রতারনার অভিযোগ

খান মোঃ আল আউয়াল, বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০
Check for details

বাগেরহাট জেলার ফকিরহাটে জমি কিনতে গিয়ে বিপাকে পড়েছে এক দরিদ্র ভ্যান চালকের পরিবার। মাথা গোঁজার ঠাই গোছাতে ধার দেনার সাথে গোছানো টাকা খুইয়ে পথে বসেছে বাপ আর ছেলে। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতে মামলা করে কিছু টাকার সমাধান মিললেও বাকি টাকা ফেরত পাবার আশায় পথে পথে ঘুরছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনসহ এলাকার সচেতন মহল পাশে না দাঁড়ালে তিনি প্রবঞ্চনার শিকার হবেন বলে মনে করছেন ভুক্তভোগী।

সরেজমিনে জানা যায়, ফকিরহাট উপজেলার পিলজংগ ইউনিয়নের বালিয়াডাংগা গ্রামের দরিদ্র ভ্যানচালক খান আবুল কাসেম ও তার ছেলে শরীফুল প্রতিবেশী আঃ মান্নান চার কাঠা জমি বিক্রি করবে জানতে পেরে ওই জমি কেনার আগ্রহ দেখান। আঃ মান্নান নিজেও কাসেমের ভাই হাছান ও ছত্তারকে জমি বেচার বিষয়টি জানান। বৃদ্ধ কাসেম ও তার ছেলে শরীফুল মধ্যস্থতাকারী হাছান মারফত মান্নানকে বিভিন্ন সময়ে মোট দুই লাখ আশি হাজার টাকা দেন। টাকা পাওয়ার পর মান্নান জমি বুঝে না দিয়ে নানা টালবাহানা শুরু করলে শরীফুল পিলজংগ ইউনিয়ন গ্রাম আদালতে মামলা করেন। আঃ মান্নান মামলায় হেরে শরীফুলকে ৭০ হাজার টাকা ফিরিয়ে দেন। কাসেমের অভিযোগ, আমি মান্নানের কাছে আরো দুইলাখ দশ হাজার টাকা পাই যা ফেরত পাইনি। করোনাকালীন সময়ে কোথাও স্বাভাবিক কাজ কর্ম না হওয়ায় গ্রাম আদালতের বাকী দাবী দাওয়ারও কোন নিষ্পত্তি হয়নি।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details