1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman

বাংলাদেশের সামনে অনেক কিছু অর্জনের!

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৮ মার্চ, ২০১৮
Check for details

কে ফেবারিট? বাংলাদেশ নাকি ভারত? কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে নিদাহাস ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনাল মাঠে গড়ানোর আগে চলছে এমনই হিসাব-নিকাশ। কারও মতে, অভিজ্ঞ ও দুরন্ত বাংলাদেশ শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকলেও কারও মতে গ্রুপ পর্বের পয়েন্ট তালিকায় ওপরে থাকা ভারতই ‘ফেবারিট’।

শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি মাহেলা জয়বর্ধনের মতে কিছুক্ষেত্রে হয়তো ‘ফেবারিট’ ভারত, তবে বাংলাদেশের হারাবার কিছু নেই। বরং এই ম্যাচে টাইগাররা যা কিছু করবে, সবই লেখা থাকবে অর্জনের খাতায়। সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক মনে করেন, বাংলাদেশ চাপমুক্তভাবেই খেলবে। তাছাড়া বাংলাদেশ দলে অনেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটারও আছেন, যা তাদের আশাবাদের কারণ।

মাহেলার এ বক্তব্য নিয়ে প্রতিবেদন করেছে ভারতের টাইমস অব ইন্ডিয়া। রোববার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে মাঠে নামছে বাংলাদেশ ও ভারত। তার আগে লঙ্কান কিংবদন্তির এই মন্তব্য বেশ আশাবাদের প্রদীপ জ্বালছে লাল-সবুজের সমর্থকদের শিবিরে।

মাহেলা বলেন, ‘রোহিত শর্মার নেতৃত্বে ভারতীয় দল তাদের পেস অ্যাটাকের কারণে ফেবারিট। কিন্তু বাংলাদেশের এ ম্যাচে হারাবার কিছু নেই, বরং সবকিছু অর্জনের।…কোনো প্রত্যাশার চাপ ছাড়াই বাংলাদেশ ভারতের বিরুদ্ধে আগ্রাসী খেলা খেলতে পারে।’

৪৪৮টি ওয়ানডে, ১৪৯টি টেস্ট ও ৫৫টি টি-টোয়েন্টি খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন মাহেলা মনে করেন, ভারতের দলে হয়তো কয়েকজন সিনিয়র খেলোয়াড় নেই, কিন্তু তারা প্রমাণ করেছে সব বিভাগেই তাদের এখন প্রতিভার দারুণ গভীরতা আছে।

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের অনেক উত্থান-পতনের সাক্ষী মাহেলা বলেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে পেস বোলিংয়ের কারণে ভারত যেমন কিছুটা এগিয়ে, তেমনি তাদের ব্যাটিং অর্ডারটাও ভারসাম্যপূর্ণ। তবে বাংলাদেশের টপঅর্ডারে এমন কিছু অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান আছেন, যারা বেশ হুমকি হয়ে উঠতে পারেন’।

ম্যাচটা যেহেতু টি-টোয়েন্টি, যেকোনো মুহূর্তে যেকোনো কিছু ঘটে যেতে পারে। তেমনটি মনে করেন মাহেলাও, ‘দিন শেষে যারা সর্বোচ্চ জায়গা থেকে চাপ সামলে নিতে পারবে এবং গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে নিজেদের সঠিক পথ দেখাতে পারবে, তারাই শেষ হাসি হাসবে।’

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details