1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
লেবাননে প্রবাসী অধিকার পরিষদের ইফতার মাহফিল বেগম জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেবে সরকার : অ্যাটর্নি জেনারেল করোনা : ভারতে শনাক্ত ২ কোটি ছাড়াল করোনা : বিধিনিষেধ আবারও বাড়ল, চলবে না দূরপাল্লার বাস অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফয়সাল ও সম্পাদক ফারুক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল জামালপুরে নতুন কমিটি গঠন জেলহাজতে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “আঁখি হালদার” আয়েবপিসি’র কার্যনির্বাহী পরিষদের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত জার্মানবাংলা’র ”প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি ”শিরীন আলম”

বলী খেলায় চ্যাম্পিয়ন চকরিয়ার জীবন বলী

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ২৫ এপ্রিল, ২০১৮
Check for details
  • নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

তখন ঘড়িতে ৫টা ৩২ মিনিট। পাঁচ ফুট উঁচু টার্ফে বলীরা যখন শক্তিমত্তার লড়াইয়ে একে অন্যকে ঘায়েল করতে ব্যস্ত, তখন তিল ধারণের জায়গা নেই পুরো মাঠে। দর্শকদের উল্লাস আর উৎসবমুখরতার মাঝেই চলছিল জব্বারের বলী খেলার ১০৯তম আসরের ফাইনাল রাউন্ড।
টার্ফে খেলছিলেন কুমিল্লার শাহ জালাল আর চকরিয়ার তারেকুল ইসলাম জীবন। দীর্ঘ ১৪ মিনিট তুমুল প্রতিযোগিতার পরও কেউ কাউকে হারাতে পারেননি। তখনও টার্ফে চলছিল দুই বলীর লড়াই। হঠাৎ বিচারক ঘোষণা দিলেন চকরিয়ার জীবন বলী চ্যাম্পিয়ন। বিচারকদের এমন সিদ্ধান্তে হতাশ হয়েছেন দর্শকরা। মেনে নিতে পারেননি শাহ জালাল নিজেও। এটি পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্ত বলে প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছেন তিনি । তবে শাহজালাল বলী ও দর্শক—সবার আপত্তির মুখেই শিরোপা তুলে দেওয়া হয়েছে জীবন বলীর হাতে। সেই সঙ্গে জব্বারের বলী খেলার এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলেন চকরিয়ার জীবন বলী।
বিচারকদের পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় শাহজালাল বলেন, ‘বিচারকরা কাজটা ঠিক করেননি। অন্যায়ভাবে আমাকে হারিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেখানে জীবন নিজেই আমার কাছে হার মেনে যাচ্ছিল ঠিক সেই সময় তাকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।’

১০৯তম জব্বারের বলী খেলার ফাইনালের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী। (ছবি-ফোকাস বাংলা)জীবন বলীকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করায় শাহজালালের মতো উপস্থিত দর্শকরাও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। জীবন বলীকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা মাত্রই মঞ্চের চারপাশ থেকে দর্শকরা ভুয়া, ভুয়া বলে চিৎকার দিতে থাকেন। এসময় অনেকে এ রায় মানি না, মানি না বলেও চিৎকার দেন।

একাধিক দর্শক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দুই জনের একজন পরাজিত হওয়ার আগেই আরেকজনকে বিজয়ী ঘোষণা করা ঠিক হয়নি। বিচারকরা অন্যায়ভাবে এ রায় দিয়েছেন। এভাবে নিজেদের খেয়ালখুশি মতো খেলা পরিচালনা করলে ভবিষ্যতে ভালো প্রতিযোগীরা খেলায় অংশ গ্রহণ করবেন না। নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে খেলা পরিচালনা করা উচিত বলেও তারা অভিমত ব্যক্ত করেন।
তবে বিচারাকরা দাবি করেছেন তাদের সিদ্ধান্তই সঠিক। এ বিষয়ে জানতে চাইলে খেলা পরিচালনাকারী সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল মালেক জানিয়েছেন, ফাইনাল রাউন্ডে দীর্ঘক্ষণ খেলতে গিয়ে শাহ জালাল বলী চকরিয়ার জীবন বলীকে দুই দফায় জখম করেছেন। দুই দফায় তাকে সাবধান করার পরও খেলার ১৪ মিনিটের মাথায় তৃতীয় দফায় আবারও জীবন বলীর উরুতে আঘাত করলে শাহ জালালকে ডিসকোয়ালিফাইড ঘোষণা করা হয়। এ কারণেই জীবন বলীকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে।
এর আগে বিকেল সোয়া ৪টায় শুরু হয় বলী খেলার ১০৯ তম আসর। এবারের আসরে চট্টগ্রামসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলার ৮৬ জন বলী খেলায় অংশ নেন। এদের মধ্যে চ্যালেঞ্জ বাউট বলী ছিলেন ৮ জন। মূল পর্বের প্রতিযোগিতায় তারাই অংশ নিয়েছেন।

১০৯তম জব্বারের বলী খেলার ফাইনালের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী। (ছবি-ফোকাস বাংলা)এদের মধ্যে চকরিয়ার তারেকুল ইসলাম জীবন, কুমিল্লার হোমনার শাহজালাল, মহেশখালীর মো. হোসেন ও উখিয়ার জয়নাল সেমিফাইনাল খেলেন। সেমি ফাইনালে শাহজালাল মহেশখালীর মোহাম্মদ হোসেনকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠেন। অন্যদিকে তারেকুল ইসলাম জীবন উখিয়ার জয়নালকে হারিয়ে ফাইনাল খেলার সুযোগ পান।
অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মাসুদ উল হাসান। এসময় অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, আব্দুল জব্বারের দৌহিত্র শওকত আনোয়ার বাদল, স্থানীয় কাউন্সিলর ও খেলা আয়োজক কমিটির সভাপতি জহরলাল হাজারী উপস্থিত ছিলেন। পরে প্রতিযোগিতা শেষে মেয়র বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details