1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

প্রায় এক কোটি গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ৫ মে, ২০১৯
Check for details

জার্মান-বাংলা ডেস্ক:বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) সূত্রে জানা গেছে, দেশে আরইবির সমিতি রয়েছে ৮০টি। ঝড়ে সব সমিতির আওতাধীন এলাকাতেই বিদ্যুতের তারের ওপর গাছ পড়েছে। এতে আরইবির এলাকায় সারা দেশে বিদ্যুতের ১২৯টি খুঁটি পড়ে গেছে। আর পিডিবির সরবরাহ এলাকায় পড়েছে ৮০টি খুঁটি। ঝড়ের কারণে পিডিবির ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, টাঙ্গাইল ও ফেনীর গ্রাহকেরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। আর দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থা ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকো) ঝড় শুরুর এক দিন আগেই অধিকাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রেখেছিল। তবে ঢাকার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ের গতি কম থাকায় রাজধানীর দুই বিতরণ সংস্থার বিতরণ লাইনে কোনো ক্ষতি হয়নি বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

আরইবির সূত্রে জানা গেছে, ফণীর প্রভাবে দেশের ৬৪ জেলার ৮০টি সমিতির ৮১ লাখ ৬ হাজার ৫০০ গ্রাহক বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন। সারা দেশে বিদ্যুতের গ্রাহকের সংখ্যা ৩ কোটি ৩০ লাখ, যার মধ্যে শুধু আরইবির রয়েছে ১ কোটি ৬০ লাখ গ্রাহক।
আরইবির এলাকায় সব থেকে বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে নওগাঁয় ৩ লাখ ৭০ হাজার, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৩ লাখ ৩০ হাজার, জামালপুরে ৩ লাখ ১০ হাজার, কুড়িগ্রামে ২ লাখ ৭০ হাজার ও বাগেরহাটে ২ লাখ ২৫ হাজার গ্রাহক বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েন।
আরইবির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) মঈন উদ্দিন গত রাতে মুঠোফোনে জার্মান বাংলা২৪ কে বলেন, ‘আমরা আমাদের সব কর্মীকে কাজে লাগিয়েছি। ইতিমধ্যে বহু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হয়েছে। দ্রুতই বাকি এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হবে।’

বিতরণ লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হলেও দেশের বিদ্যুৎ সঞ্চালনের দায়িত্বে থাকা পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশের (পিজিসিবি) সঞ্চালন ব্যবস্থার কোনো ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। পিজিসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুম আল বেরুনী বলেন, ‘আমাদের কোনো সাব-স্টেশন বা সঞ্চালন লাইনের কোনো ক্ষতি হয়নি। বিতরণ সংস্থাগুলোর লাইন মেরামত সম্পন্ন হলে পিজিসিবি বিদ্যুৎ সঞ্চালন শুরু করবে।’

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সারা দেশে প্রায় এক কোটি গ্রাহকের বিদ্যুৎ-সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এর বেশির ভাগই পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) আওতাধীন এলাকা। গতকাল কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হলেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে আগামীকাল সোমবার লেগে যেতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details