1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

পিতা-পুত্রকে হত্যার দায়ে নেত্রকোনায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১২ জুলাই, ২০১৮
Check for details

নেত্রকোনা প্রতিনিধি: পূর্ব শত্রু তার জেরে নেত্রকোনার আটপাড়ায় পিতা পুত্রকে হত্যার দায়ে ৫ জনকে যাবজ্জীন কারাদন্ড ও প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ডও দিয়েছেন নেত্রকোনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। অনাদায়ে আরো ৩ মাসে কারাদন্ডাদেশ প্রদান কারা হয়েছে। একই মামলায় আরো ৭ জনকে বেখছুর খালাস প্রদান করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে আসামীদের উপস্থিতিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক কে এম রাশেদুজ্জামান রাজা এ রায় প্রদান করেন।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, আটপাড়া উপজেলার মাদল গ্রামের, রোকন মিয়া, সাবাস খা, জসিম উদ্দিন, সলতু খা, ও হারেস মিয়া। একই মামলায় খালাস প্রাপ্তরা হলেন, রমিজ খাঁ, ছদ্দু মিয়া, জুয়েল মিয়া, কমল খা, আলাল উদ্দীন, নরূল আমিন খা।

জেলা জজ আদালতের পিপি সাইফুল আলম প্রদীপ জানান, ২০১১ সালের ২৭ মার্চ সকালে রূপচন্দ্রপুর গ্রামের নিহত তাজুল ইসলাম ও তার পুত্র সমুন মিয়া বিল থেকে মাছ ধরা শেষে বাড়ি ফেরার পথে পূর্ব শত্রুতার জেরে আসামীরা তাদের পথ রোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

পরবর্তীতে খবর পেয়ে স্বজনরা গুরুত্বর আহত অবস্থায় প্রথমে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পরবর্তীতে ময়মনসিংহ ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাদের চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় একইদিন তাজুল ইসলামের ছেলে সোহাগ মিয়া বাদী হয়ে আটপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ১৩ জনকে আসামী করে ২০১২ সালের ১৫ সেপ্টম্বর আদলতে চার্জসীট দাখিল করেন। আদালত ১২ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগহন শেষে ১২ জুলাই এ রায় প্রদান করেন।

এদিকে রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের কৌশলী পিপি সাইফুল আলম প্রদীপ সন্তুষ্ট হলেও বাদীপক্ষ সন্তুষ্ট হননি বলে জানান মামলার বাদী সোহাগ মিয়া।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details