1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানবাংলা’র ‘RJ মিউজিক্যাল লাইভ শো’তে এবার আসছে গানের দল “অন্তরীণ” হেসেন ফ্রাঙ্কফুর্ট আওয়ামীলীগ কর্তৃক বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২২’ উপলক্ষ্যে ১১ দফা প্রস্তাব উত্থাপন জার্মানবাংলা’র “প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “শম্পা কুন্ডু” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “সাজেদ ফাতেমী” স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী স্বরণ ও দেশনেত্রী’র দোয়ায় বিএনপি’র জার্মানি শাখা। জীবননগরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১ ব্রাসেলসে অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের অভিষেক দুবাই ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে অংশগ্রহণ করবে ওয়েন্ড-এর প্রতিনিধি দল গোধূলির ছায়া

পরকীয়ায় জড়িয়ে স্বামী-সন্তান ত্যাগ করলেন মহেশপুরের গৃহবধূ

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯
মহেশপুর
মহেশপুরে এক গৃহবধূ প্রবাসী ছেলের সাথে পরকিয়া করে বাড়ি ছাড়া
Check for details

শামীম খাঁন, মহেশপুর প্রতিনিধি:ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার আজমপুর ইউনিয়নের আলমপুর কুলবাগান গ্রামের এক গৃহবধূ স্বামীর সংসার ও ছেলে (১১), মেয়ে (১৪) রেখে প্রবাসী এক ছেলের উদ্দ্যেশে বাড়ি থেকে বাপের বাড়ি চলে গেছে।

আব্দুল মজিদের পুত্র আয়নাল উদ্দিন জানায়,“আমার বাড়ি থেকে ৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা ও ব্যবহারের জিনিষ পত্র নিয়ে চলে গেছে। তিনি আরো জানায় আমার স্ত্রী বাড়ি থেকে যাওয়ার সময় বলে গেছেন যে আমার বাবার বাড়ি যাচ্ছি, আমার বাবার শরীরটা বেশি ভালো না। কিন্তু আমি জানতাম না আমার টাকা পয়সা নিয়ে চলে যাচ্ছে, আমার স্ত্রী যাওয়ার সময় বলে গেছেন যে ছেলে মেয়ে তোমার কাছে থাকলো দেখে শুনে রেখো।”

এক সপ্তাহ চলে গেল এইভাবে, পরে আমি ফোন করলাম আমার স্ত্রীর কাছে যে তুমি বাড়িতে আসবে কবে? উনি জবাব দিলেন যে কিসের বাড়ি কিসের ঘর। পরে আমি একমাস পর গিয়েছিলাম শশুর বাড়ি। যাবার পরে আমাকে কথা বলার সুযোগ দেয়নি। বলছেন কে আপনি? আমাদের বাসায় কেন এসেছেন? চলে যান। চিনি না আপনাকে। পরে আমি শশুর বাড়ির এলাকার লোকজন কে বলি, আমাকে ওনারা কি চেনে না? আপনারাও কি আমাকে চেনেন না? আমি কে? বলামাত্র উনারা জবাব দিলেন তুমি আমাদের জামাই। কিন্তু পরে ছেলে মেয়ে মায়ের কাছে নানা বাড়ি রাজশাহী চলে গেছে।

পরে স্ত্রী বললেন যে আমি কারো স্ত্রী নয়, আমারতো বিবাহ হয়নি। এই কথা শুনে আমি ওই জায়গা থেকে চলে আসলাম। পরে ভাবলাম যে, ছেলে মেয়ের দিকে তাকায়ে না হয় আসতে পারে। পরে একদিন আমি ফোন করলাম যে, তুমি কি আসবে না? তোমার ছেলে মেয়ের দিকে তাকায়ে না হয় আসো। উনি বললেন যে কিসের ছেলে মেয়ে, আপনি কে বলছেন পরে আমি ফোনটা কেটে দিলাম যে ও আমাকে চেনে না, তাহলে আমি কেন বারবার ওর কাছে ফোন করছি। যে ছেলেটির সাথে সম্পর্ক সেই ছেলেটি থাকে সম্ভাবত মরিচ নামক দেশে।

এই ভাবেই কেটে গেল তিনটি মাস। এখন পর্যন্ত আমি কোনো মামলা দায়ের করিনি ওর বিরুদ্ধে। আর মাত্র একটি মাস দেখবো। এরপর থানায় গিয়ে আমি মামলা করব, না হয় কোর্টে যাবো।

আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করছি যে, আমার স্ত্রী যেন বাংলাদেশ থেকে বিদেশের মাটিতে পা না দিতে পারে। আমার স্ত্রীর পাসপোর্ট নাম্বার BM 0515295। কারন আমি ওকে নিয়ে ঘর সংসার করতে চাই, আমি চাইনা মামলা করতে। মামলা করার আগে ও যেন আমার ঘরে ফিরে আসে। এটাই আমার অনুরোধ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details