1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে শিশু ধর্ষণ, দশম শ্রেণির ছাত্র গ্রেপ্তার

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ১৮ জুন, ২০১৮
Check for details

আসাদুজ্জামান চৌধুরী কাজল, নোয়াখালী প্রতিনিধি : টিভি দেখতে দেয়ার লোভ দেখিয়ে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার দেওটি ইউনিয়নে গত এক মাস ধরে এক শিশু (৫) কে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে ইউনুছ আহমদ সিয়াম (১৬) নামের এক কিশোরের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত সিয়ামকে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার (১৮ জুুন) সকালে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরিক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযুুক্ত ইউনুছ আহমদ সিয়াম দেওটি ইউনিয়নের আমিরাবাদ গ্রামের দক্ষিণ আমিরাবাদ পাটোয়ারী বাড়ীর মো. মিলনের ছেলে। সে আমিরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।
ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত এক মাস আগ থেকে একই বাড়ীর ফুহাদুল ইসলাম (৭) কে তার কাকা ইউনুছ আহমদ সিয়াম তাদের ঘরে এসে প্রাইভেট পড়ানো শুরু করে। ওইসময় ফুহাদের সাথে তার ছোট বোন (৫) ও এসে স্বরবর্ণ ব্যাঞ্জন বর্ণ পড়ত। প্রাইভেট শুরু হওয়ার ৪দিন পর থেকে ঘরে অন্য কেউ না থাকার সুযোগে সিয়াম ফুহাদকে পড়তে দিয়ে ভিকটিমকে নিয়ে পাশের একটি কক্ষে গিয়ে দরজা জানালা বন্ধ করে দিত এবং অনেকক্ষণ পর বের হয়ে আসত। এভাবে প্রতিনিয়ত এই ঘটনা চলতে থাকে। এরমধ্যে ভিকটিম ও ফুহাদ এই ঘটনা তাদের মা-বাবাকে বলে দিবে বললে সিয়াম তাদের ঘরে গেলে টিভি দেখতে দিবে না এবং বেশি বাড়াবাড়ি করলে মেরে পানিতে ফেলে দিবে বলে হুমকি দেয়।
এরসূত্র ধরে গত ১৪ জুন বৃহস্পতিবারও সিয়াম ভিকটিমকে নিয়ে ওই কক্ষে ডুকে দরজা-জানালা বন্ধ করে দেয়। এর কিছুক্ষণ পর ভিকটিমের মা ঘরে এসে দেখে ওই কক্ষের দরজা-জানালা বন্ধ। পরে তিনি ফুহাদকে জিজ্ঞেস করলে কক্ষের ভিতরে সিয়াম ও ভিকটিম রয়েছে বলে জানায় সে। এসময় তিনি সিয়ামকে ডাক দিলে সে দ্রুত কক্ষ থেকে বের হয়ে চলে যায়। পরে তিনি ভিকটিমকে জিজ্ঞেস করলে সে প্রতিদিনে ঘটনা তার মাকে খুলে বলে। এরপর ঘটনাটি সিয়ামের পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো তাদেরকে বিভিন্ন ধরনের হুমিক প্রধান করতে থাকে। পরে নিরূপায় হয়ে রবিবার দুপুর ১২টার দিকে তারা এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করলে দুপুর ২টার দিকে পুলিশ অভিযুক্ত সিয়ামকে গ্রেপ্তার করে।
সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অভিযুক্ত সিয়ামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষণের প্রাথমিক আলামত পাওয়া গেছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরিক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details