1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব সখীপুরে ‘মুক্তিযুদ্ধের কবিতা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

জার্মানীতে বার্লিন দূতাবাসের উদ্যোগে স্বাধীনতা দিবস উৎযাপন!

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ২৭ মার্চ, ২০১৮
Check for details

জার্মানীতে অবস্থিত বার্লিন দুতাবাসের উদ্যোগে ৪৮ তম স্বাধীনতা দিবস উৎযাপন করা হয়েছে। বাংলাদেশের জন্মদিন উপলক্ষে পতাকা উত্তোলন ও কেক কেটে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করা হয়। সেই সাথে স্বাধীনতার ঘোষক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধে নিহত সকল শহীদদের প্রতি কিছু সময় নীরবতা পালন করে গভীর শদ্ধাভরে স্মরন করা হয়।

অনুষ্ঠানটি জার্মানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে আয়োজন করা হয়। জার্মান দুতাবাস এ্যাম্বাসিডর ইমতিয়াজ আহমেদ  এ সময়ে স্বাগত বক্তব্য দেন উস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে। বাংলাদের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় প্রবাসী বাংলাদেশীদের অবদানের কথা উল্লেখ করে সকলের ভুয়সী প্রশংসা করেন। সেই সাথে তিনি আশাবাদ ব্যক্তে করেন বাংলাদেশের জন্মদিনে বিশ্বের দরবারে প্রবাসীরা দেশের মুখ আরও উজ্বল করবে।

এসময়ে উপস্থিত আরও অনেকে বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন বাংলাদেশ কিছু দিন আগে উন্নয়নশীল দেশের প্রথম ধাপে উন্নিত হয়েছে। দেশে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি দেশ পরিচালনার কারনেই এ উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। আর এই দেশকে যারা স্বাধীনতা উপহার দিয়েছে তাদের অনেকের পরিবার পরিজনও অসহায় দিনযাপন করছে। বক্তারা আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন বাংলাদেশ ক্ষুধা দারিদ্রের দেশ নয় উন্নত দেশের কাতারে যাবে শীঘ্রই।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, কুটনীতক, জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের প্রতিনিধিসহ গন্যমান্য ব্যাবসায়ীরা। নৈশ ভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

ফাতেমা রহমান রুমা।
জার্মান বাংলা ডটকম।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details