1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : germanbangla24.com : germanbangla24.com
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল জামালপুরে নতুন কমিটি গঠন জেলহাজতে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “আঁখি হালদার” আয়েবপিসি’র কার্যনির্বাহী পরিষদের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত জার্মানবাংলা’র ”প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি ”শিরীন আলম” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “ফারহা নাজিয়া সামি” বাংলাদেশে হরতাল প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেনঃ উচ্ছৃঙ্খলতা বন্ধ না করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয় হবে। জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “মিনহাজ দীপন“ সাকিব আল হাসানের বক্তব্যে কঠোর বিসিবি জার্মানবাংলা’র “প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি “কাইয়ুম চৌধুরী”

গরমে সুস্থ থাকতে!

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ২২ মার্চ, ২০১৮
Check for details

গরমে আবহাওয়ার সঙ্গে আমাদের শরীরের তাপমাত্রাও বৃদ্ধি পায়। এসময় প্রচুর ঘাম হয়, ঘামের সঙ্গে আমাদের শরীরের প্রয়োজনীয় পানি ও লবণ বেড়িয়ে যায়। যার ফলে পানির অভাবে আমাদের শরীরে পানিশূন্যতা, বমিভাব, মাথায় যন্ত্রণাসহ হিটস্ট্রোকের মতো নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়াও শরীরে লবণের অভাব হলে মাসলপুল করে।

এই সমস্যাগুলো থেকে মুক্তির জন্য:

হিটস্ট্রোক
গরমে আমাদের শরীরের সৃষ্ট সমস্যাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বিপদজনক হচ্ছে হিটস্ট্রোক। শরীরের তাপমাত্রা ১০৪ ডিগ্রি ফারেনহাইট এবং এর বেশি হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে বুঝে নিতে হয় হিটস্ট্রোক হয়েছে। এমন অবস্থায় রোগীকে যত দ্রুত সম্ভব শরীর ঠাণ্ডা করার ব্যবস্থা নিতে হবে এবং হসপিটালে নিয়ে যেতে হবে।

পানিশূন্যতা
পানিশূন্যতার লক্ষণগুলো জেনে নেই
যখন আমাদের প্রস্রাব অতিরিক্ত হলুদ হবে। তখন বুঝতে হবে আমরা প্রয়োজনের তুলনায় কম পানি পান করছি। কোষ্ঠকাঠিন্য হলে, ত্বক, ঠোঁট, মুখ শুষ্ক লাগে, ঘন ঘন তেষ্টা পায় এবং প্রায়ই সংক্রমণ হলে বুঝতে হবে পানিশূন্যতায় ভুগছি।

পানিশূন্যতা থেকে মুক্তি পেতে
শরীরের তাপমাত্রার অত্যধিক বৃদ্ধি ও পানিশূন্যতা রোধ করার জন্য, শরীরের অতিরিক্ত পানি থাকতে হবে। এজন্য প্রথমেই আমাদের সচেতন হতে হবে খাবারের বিষয়ে।

পানি: শরীরের আর্দ্রতা ধরে রাখতে দিনে ৩ থেকে ৪ লিটার বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে। গরমে সুস্থ সতেজ ও কর্মচঞ্চল প্রাণোচ্ছ্বল থাকতে পানি পানের কোনো বিকল্প নেই।

বরফ চা: অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস সমৃদ্ধ বরফ চা একটি রিফ্রেশিং পানীয়। এটি আমাদের শরীর ঠাণ্ডা এবং আর্দ রাখে। গরমে সুস্থতায়

জুস : শরীর ঠাণ্ডা রাখতে ভিটামিন, খনিজ পদার্থ সমৃদ্ধ লেবু, তরমুজ, শসা, কাঁচা আমের পুষ্টিকর জুস নিয়মিত পান করতে হবে।

ঘামাচি
গরমে ঘাম থেকে অনেক সময় ঘামাচি হয়। এই অস্বস্তি থেকে মুক্তি পেতে—

দুই চা চামচ বেকিং সোডার সঙ্গে পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ঘামাচির ওপর লাগিয়ে কয়েক মিনিট রেখে নরম কাপড় দিয়ে ঘষে ঘষে ধুয়ে ফেলুন। বেকিং সোডা ইনফেকশন দূর করে ও ত্বকে আরাম দেয়।

এক টুকরো সুতির পাতলা কাপড়ে কয়েক টুকরো বরফ নিয়ে পুটুলি বানান। এবার আস্তে আস্তে ঘামাচির উপর বরফের পুটুলি বুলিয়ে নিন ও চেপে ধরুন। দিনে ছয়ঘণ্টা অন্তর এভাবে দু’তিনদিন করলেই ভালো ফল পাবেন।

গরমে বারবার পানি দিয়ে মুখ, হাত, পা ধুয়ে নিন, পুষ্টিকর টাটকা খাবার, শাকসবজি, ফল বেশি পরিমাণে খান।

ফাতেমা রহমান রুমা
জার্মান বাংলা ডটকম।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details