খুলনা সিটি কর্পোরেশনের (২০১৯-২০২০) অর্থবছরের বাজেট ঘোষনা

Check for details

রাইসুল আলম রবিন,খুলনা প্রতিনিধি:খুলনা সিটি কর্পোরেশনের (কেসিসি) প্রথম বিশেষ সভা (বাজেট) গতকাল বিকেলে নগরভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

সভায় আগামী ২৪ জুলাই নগরভবনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কেসিসি’র ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের ৮৬৫ কোটি ৫৪ লাখ ৩ হাজার টাকার প্রস্তাবিত বাজেট পেশ এবং ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের ২৯৮ কোটি ৮৩ লাখ ১৪ হাজার টাকার সংশোধিত বাজেট ঘোষণা করা হবে বলে সভায় জানানো হয়।

এছাড়া সভায় ঈদ-উল-আজহা পূর্ববর্তী ও পরবর্তী নগরীর বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম জোরদারকরণের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশ নিশ্চিত করা এবং জোড়াগেট পশুর হাট সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে একটি কমিটি গঠন করা হয়। কেসিসি’র প্যানেল মেয়র মোঃ আমিনুল ইসলাম মুন্না, মোঃ আলী আকবর টিপু ও মেমরী সুফিয়া রহমান শুনুকে উপদেষ্টা, কাউন্সিলর মোঃ আনিছুর রহমান বিশ্বাষ ও ইমাম হাসান চৌধুরী ময়নাকে সদস্য সচিব এবং সাধারণ আসন ও সংরক্ষিত আসনের সকল কাউন্সিলরকে কমিটির সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
সভায় সিটি মেয়র বলেন, নগরীতে পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিত করা এবং বর্ষা মৌসুমে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের বিষয়টি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে। এছাড়া সব এলাকায় সুষম উন্নয়নের লক্ষ্যে বাজেটে পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ রাখা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

কেসিসি’র প্যানেল মেয়র আলী আকবর টিপু, মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু, অর্থ ও সংস্থাপন স্থায়ী কমিটির সভাপতি শেখ মোঃ গাউসুল আযমসহ কাউন্সিলর, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

কেসিসির অর্থ ও সংস্থাপন স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোঃ গাউসুল আযম বলেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে ৮৬৫ কোটি টাকা। যা নগরীর ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও জলবদ্ধতা দূরীকরণকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। তারা যা প্রস্তাব দিয়েছিলেন তা কোনো সংযোজন-বিয়োজন হয়নি। ওই প্রস্তাবই সভায় অনুমোদন হয়।

Facebook Comments