1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

কোটচাঁদপুরের ওসি এল এসডির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ!

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ২ আগস্ট, ২০১৮
Check for details

মোঃ নজরুল ইসলাম, কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ): ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের ওসি এল এসডি সেলিম রেজার বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভূক্তভোগীরা।

অনুসন্ধানে জানা যায়, কোটচাঁদপুরের ওসি এল এসডি সেলিম রেজা এলাকার তালিকাভূক্ত মিল মালিকদের নিকট থেকে চাল সংগ্রহ না করে খোলা বাজার থেকে খাবার অনুপযোগী এবং অনেক কম দামে চাল সংগ্রহ করে গুদামজাত করেছেন। এবং তালিকাভূক্ত মিল মালিকদের কাছ থেকে চাল ক্রয় করেন প্রতি কেজিতে সরকার নির্ধারিত মূল্য থেকে ৩/৪ টাকা কম দামে।

ভূক্তভোগী কোটচাঁদপুরের মের্সাস বকুল অটো রাইচ মিলের মালিক মোঃ বকুল মিয়া জানান, মিল মালিকরা এই দামে চাল বিক্রয় করতে অস্বীকৃতি জানালে তিনি (সেলিম রেজা) বলেন, সরকারী নির্ধারিত চাল আমি গুদামে দিয়ে দিচ্ছি আপনারা প্রতি কেজিতে ২ (দুই) টাকা লাভ নিয়ে চুপচাপ চলে যান।

কোটচাঁদপুরের ২৬ জন মিল মালিকের মধ্যে ৫/৬ জনের সাথে সর্ম্পকে রেখে বাকি মিলারদের সাথে খারাপ আচরণ করেন।লোক চক্ষুর আড়ালে রাতের অন্ধকারে গুদামে পুরাতন ও নিম্নমানের চাল ঢুকান।

তার এই দূর্নীতির কারনে প্রকৃত মিলমালিকরা অত্র এলাকায় চাতাল ব্যবসা করতে পারছে না। আমরা মিল মালিকরা তার এই অনৈতিক আচারণে জিম্মি হয়ে গেছি।

খোজ নিয়ে জানা গেছে, মেসার্স বকুল অটো রাইস মিলার এর নিকট ৩৫৮ টন চাল বরাদ্দ থাকলেও তার কাছ থেকে ৩০০ টন চাল নিয়ে হাটগোপালপুরের খোলা বাজার থেকে বাকী ৫৮ টন নিম্ন-মানের চাল ক্রয় করে বরাদ্দ পূর্ণ দেখিয়েছেন এবং নাসির উদ্দিন বুলু মিয়ার নামে ১৬ টন ৪৪০ কেজি বরাদ্দের জায়গায় মাত্র ৫ টন ৪৪০ কেজি চাল ক্রয় করেন, বাকী চাল খোলা বাজার থেকে ক্রয় করে নাসির উদ্দিন বুলুর নামে দেখিয়েছেন।

এদিকে জালালপুরের আসাদুজ্জামান রাইচ মিল, কোটচাঁদপুরের জাহিদ হোসেন রাইচ মিল, সাফদারপুরের সেলিনা রাইচ মিল, এলাঙ্গীর হাজী রাইচ মিল, দুধসারার ময়না রাইচ মিল, কোটচাঁদপুর মেইন বাসস্ট্যান্ডের বল্টু রাইচ মিল এবং তালসারের পাঠান রাইচ মিলগুলোর নামে চাল ক্রয়ের বরাদ্দ দেখালেও সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় কিছু মিলের বর্তমানে কোন অস্তিত্ব নেই এবং কিছু মিল বন্ধ হয়ে গেছে। এব্যাপারে কোটচাঁদপুরে ওসি এল এসডি সেলিম রেজার সাথে মুঠোফনে বার বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details