1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানবাংলা’র ‘RJ মিউজিক্যাল লাইভ শো’তে এবার আসছে গানের দল “অন্তরীণ” হেসেন ফ্রাঙ্কফুর্ট আওয়ামীলীগ কর্তৃক বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২২’ উপলক্ষ্যে ১১ দফা প্রস্তাব উত্থাপন জার্মানবাংলা’র “প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “শম্পা কুন্ডু” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “সাজেদ ফাতেমী” স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী স্বরণ ও দেশনেত্রী’র দোয়ায় বিএনপি’র জার্মানি শাখা। জীবননগরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১ ব্রাসেলসে অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের অভিষেক দুবাই ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে অংশগ্রহণ করবে ওয়েন্ড-এর প্রতিনিধি দল গোধূলির ছায়া

কায়বার চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে যুবককে গুম করার অভিযোগ

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯
Check for details

আরিফুজ্জামান আরিফ,বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধি:শার্শার কায়বা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহম্মেদ টিংকুর বিরুদ্ধে মহিবুল নামের এক যুবককে গুম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
গুম হওয়া যুবক মহিবুল উপজেলার কায়বা গ্রামের শুকুর আলী ধোবেন ছেলে।এঘটনায় মহিবুলের পিতা ছেলের টেনশনে স্ট্রোক করে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

জানা গেছে, যশোরের শার্শা উপজেলার কায়বা গ্রামের এক গ্রাম্য মাতবরের মেয়ে পার্শ্ববর্তী সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলার সাতপোতা গ্রামের জনৈক ইব্রাহীমের সাথে শুক্রবার অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়।অনৈতিক কাজের এই ভিডিওটি করে কায়বা গ্রামের শুকুর আলী ধোবনের ছেলে মহিবুল।

আর এটাই মহিবুলের কাল হয়েছে অনৈতিক কাজের ভিডিও করা। গ্রাম্য মাতবররা অসামাজিক কাজের বিচার না করে উল্টো মহিবুলের উপর দোষারোপ করে।আর সে এই অসামাজিক কাজের ভিডিও করেছে কেন বলে চাপ প্রয়োগ করে এবং মহিবুলের পরিবারের কাছে চেয়ারম্যান টিংকুর ক্যাডাররা ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে।
দাবীকৃত টাকা না দেওয়ায় শুক্রবার সন্ধ্যায় চেয়ারম্যান টিংকুর পোষ্য ক্যাডার দাউদ, ভাবলু রফিকুল সহ ১০ / ১২ জন দূর্বত্ত মহিবুলকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে আসে চেয়ারম্যান টিংকুর কাছে।এর পর থেকে মহিবুলকে আর না পাওয়া যাওয়ায় তার পরিবারের অভিযোগ, চেয়ারম্যান টিংকুর ক্যাডারদের দাবীকৃত ২ লাখ টাকা না দেওয়ায় মহিবুলকে গুম করা হয়েছে।

মহিবুলের মা মাছুরা খাতুন জানান, আমার ছেলে মহিবুলকে শুক্রবার সন্ধ্যায় চেয়ারম্যান টিংকুর কাছে নিয়ে যাচ্ছি বলে দাউদ, ভাবলু ও রফিকুল সহ ১০/ ১২ জন লোক জোর করে ধরে নিয়ে যায়। চেয়ারম্যান টিংকুই আমার ছেলেকে গুম করে রেখেছে।

এবিষয়ে গ্রাম্য মাতব্বর দাউদ বলেন, আমি কিছু বলবো না, চেয়ারম্যান টিংকু সবই জানে।
মহিবুলের গুম হওয়ার বিষয়ে অভিযুক্ত শার্শার কায়বা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহম্মেদ টিংকুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ছেলেটিকে নিয়ে আসার পর তাকে দাউদের মাধ্যমে থানায় পাঠিয়েছি। পুলিশের কাছে দেওয়ার পর আমার দায় দায়িত্ব শেষ হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান বলেন, থানায় কোন ছেলেকে কেউ হস্তান্তর করেনি এবং আমরা কাউকে কারো কাছ থেকে বুঝেও নেইনি।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details