1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : germanbangla24.com : germanbangla24.com
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী ”মঞ্জু সাহা” জার্মানবাংলা’র ”প্রবাসির সাফল্য” শো’র এবারের অতিথি ”মিনহাজ দীপন” জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী ”ফারজাহান রহমান শাওন” বাগেরহাটে ৭ দিনব্যাপী বই মেলা শুরু জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি, বাচিকশিল্পী “জান্নাতুল ফেরদৌসী লিজা” টিকার দ্বিতীয় ডোজ ৮ সপ্তাহ পর : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ১৪ ফেব্রুয়ারি, উপেক্ষিত ‘সুন্দরবন দিবস’ জীবননগর পৌর নির্বাচন : আচরণবিধি লঙ্ঘন ,৩ জনের সাজা জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি শিল্পী ”বিথী পান্ডে” বাগেরহাটে ওরিয়ন গ্রুপের বিরুদ্ধে গ্রাম্য সড়ক দখলের অভিযোগ

কর্মক্ষেত্রে না হাসলেই চাকরি যাবে

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ২৭ জুন, ২০১৮
Check for details

জার্মানবাংলা২৪ ডটকম ২৭ জুন: কর্মস্থলে চুপচাপ বসে বসে কাজ করবেন তার সুযোগ নেই। কর্মক্ষেত্রে থাকতে হবে হাসি-খুশি আর আনন্দময়। যেসব কর্মী কর্মক্ষেত্রে হাসছেন না। অথবা মেপে হাসছেন। বিপত্তি ঘটে যেতে পারে তাহলেই, হাসি একান-ওকান না পৌঁছালেই তাদের চাকরি হারানোর ঘোষণা দিয়েছে জাপানের একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান।

গোমড়ামুখো কর্মীদের বিদায় দিতে জাপানের একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এমন উদ্যোগই নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি কর্মক্ষেত্রে কর্মীদের হাসি একেবারে মেপে নিচ্ছে সফটওয়্যার দিয়ে।

কর্মীরা কাজের সময় হাসছেন কিনা তা চোখে চোখে রাখতে ব্যবহার করা হবে ফেসিয়াল রেকগনিশন প্রযুক্তিতে বানানো এই সফটওয়্যার।

ই-কামট্রু নামের প্রতিষ্ঠানটি গতমাসে তাদের কর্মতালিকা (ওয়ার্কলগ) ও কর্মীদের হাজিরা ব্যবস্থায় (অ্যাটেনডেন্স সিসটেমে) ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহারের ঘোষণা দিয়েছিল। কর্মীদের কর্মক্ষেত্রে আসার পর এবং কাজ শেষে চলে যাওয়ার সময় এই সিসটেমে মেপে দেখা হবে তাদের হাসি।

এমনকি প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা কাজের শুরুতে ও অফিস শেষে ‘চওড়া’ হাসিটুকু ধরে রাখতে পারছেন কি না তাও বুঝতে পারবে এই প্রযু্ক্তি।

একটি ট্যাবলেটে নিজের পরিচয় দেওয়ার পর ওই কর্মীর তাৎক্ষলিক একটি ছবি ধারণ করে কোম্পানির তথ্যভাণ্ডারের সঙ্গে মিলিয়ে নেবে সফটওয়্যারটি। ছবি তোলার পর কর্মীর ঠোঁটের কোনা কতটুকু বিস্তৃত হলো তার ওপরই বোঝা যাবে কর্মীর ‘হাসিমুখ’ চেহারা। যত বেশি হাসিমুখ ততবেশি নম্বর দেওয়া হবে কর্মীদের।

‘আপনার চেহারা যথেষ্ট হাসিখুশি নয়’ – নম্বর অনেক কম হলে প্রতিষ্ঠান থেকে এমন কথাই জানিয়ে দেওয়া হবে কর্মীকে। আর এর অর্থ হচ্ছে ওই কর্মী প্রতিষ্ঠানে কাজের সুযোগ হারাচ্ছেন।

জার্মানবাংলা২৪/এসআর

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details