1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

কমিউটার ট্রেনে যাত্রীদের ওপর চোরাচালানির হামলায় আহত ১

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৮
Check for details

আরিফুজ্জামান আরিফ, বেনাপোল প্রতিনিধি: বেনাপোল কমিউটার ট্রেনে যাত্রীদের ওপরে সংঘবদ্ধ চোরাচালানিরা হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় রাসেল (১৮) নামে এক যুবক গুরুতর আহত হয়েছে।

আহত রাসেল ঝিকরগাছা এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে। এ সময়ে জিআরপি পুলিশ ঘটনাস্থলে থেকে ঘটনা প্রত্যক্ষ করলেও তারা চোরাকারবারীদের প্রতিহত করেনি বলে অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার (২৫ আগস্ট) বিকাল পৌনে ৫টার বেনাপোল কমিউটার ট্রেনটি যাত্রী নিয়ে খুলনার উদ্দেশে যাত্রার জন্য অপেক্ষা করছিল। এ সময় একদল চোরাকারবারী ট্রেনটিতে ভারতীয় মালামাল তুলছিল। তারা মালামাল রাসেলের সিটির নিচে লুকিয়ে রাখছিল। রাসেল তার সিটের নিচে মালামালগুলো রাখতে আপত্তি জানালে চোরাকারবারীরা তার ওপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে চোরাকারবারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে রাসেলের ওপর হামলা করে।

রাসেলের গায়ের জামা-কাপড় টেনে ছিড়ে ফেলে এবং পাঁচ থেকে ছয়জন চোরকারবারী তাকে কিল ঘুষি মারতে থাকে।এ সময়ে রাসেলের মা-বাবাসহ অন্যন্যারা এগিয়ে গেলে রাসেলের বাবাকেও চোরাকারবারীরা মারধর করে এবং তাকে খুন করে ফেলা হবে বলে হুমকি দেন।

একাধিক সূত্র থেকে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে রেলওয়ে পুলিশ চোরাকারবারীদের কাছ থেকে ভারতীয় মালামালের টুপলা প্রতি ১০০ থেকে ২০০ টাকা করে নিয়ে থাকে। যে কারণে রেলওয়ে পুলিশ যাত্রীদের নিরাপত্তা দেওয়ার থেকে চোরাকারবারীদের বেশি নিরাপত্তা দিয়ে থাকে।

বিষয়টি নিয়ে বেনাপোল স্টেশন মাস্টার সাইদুরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাদের কাজ শুধু ট্রেনের সিডিউল ও টিকিট বিক্রি করা। তাই ট্রেনের নিরাপত্তার বিষয়টি জিআরপি পুলিশের কাছে খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন।

বেনাপোল জিআরপি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কামাল হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের কাজ শুধু রেলস্টেশনের প্লাটফর্মের ওপরে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা করা। ট্রেনের মধ্যে উিউটিরত রেলওয়ে পুলিশের দায়িত্ব ট্রেনের যাত্রীদের নিরাপত্তা দেওয়া।

বিষয়টি নিয়ে খুলনা রেলওয়ে পুলিশের ইনচার্জ মনিরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কোনো চোরাকারবারীর কাছ থেকে টাকা তুলি না। যদি আমার নাম করে কেউ টাকা তোলে সেক্ষেত্রে আমার কি বা আর করার আছে? যাত্রীর ওপরে হামলার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি জানেন না বলেন জানান। তবে যারা ডিউটিতে ছিল তাদের কাছে জেনে আপনাকে জানাবো বলে দ্রুত ফোনের লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেন।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details