1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
সখীপুর এস.পি.ইউ.এফ’র ১ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন লেবাননে প্রবাসী অধিকার পরিষদের ইফতার মাহফিল বেগম জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেবে সরকার : অ্যাটর্নি জেনারেল করোনা : ভারতে শনাক্ত ২ কোটি ছাড়াল করোনা : বিধিনিষেধ আবারও বাড়ল, চলবে না দূরপাল্লার বাস অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফয়সাল ও সম্পাদক ফারুক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল জামালপুরে নতুন কমিটি গঠন জেলহাজতে শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানী জার্মানবাংলা’র ‘মিউজিক্যাল লাইভ শো’র এবারের অতিথি কণ্ঠশিল্পী “আঁখি হালদার” আয়েবপিসি’র কার্যনির্বাহী পরিষদের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত

কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর সরকার প্রধানদের সঙ্গে খোলামেলা আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৮
Check for details
যুক্তরাজ্যের বাকিংহাম প্রাসাদে কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর সরকার প্রধানদের সঙ্গে এক খোলামেলা আলোচনায় অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পূর্ব নির্ধারিত কোনও আলোচ্যসূচি ছাড়াই প্রাসাদের উইন্ডসোর ক্যাসেলে অনুষ্ঠিত এই আলোচনায় উপদেষ্টা আর ব্যক্তিগত সহকারীদের বাদ দিয়েই উপস্থিত হয়েছিলেন অংশ নেওয়া দেশগুলোর সরকার প্রধানেরা। এখানেই পরবর্তী কমনওয়েলথ প্রধান হিসেবে প্রিন্স চার্লসের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন তারা। এর মধ্য দিয়ে সমাপ্তি ঘটেছে সংস্থাটির এবারের শীর্ষ সম্মেলনের।
কমনওয়েলথের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সংস্থাটির অনন্য এই আয়োজনে সরকার প্রধানেরা ব্যক্তিগত পরিসরে বৈশ্বিক ও কমনওয়েলথের সহযোগিতার অগ্রাধিকার নিয়ে আলোচনা করে থাকেন।

গত বৃহস্পতিবার বাকিংহাম প্রাসাদের গ্রান্ড ওয়াটারলু চেম্বারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ব্রিটেনের ৯১ বছর বয়সী রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ পরবর্তী কমনওয়েলথ প্রধান হিসেবে তার ছেলে ও ব্রিটিশ সিংহাসনের উত্তারাধিকারী প্রিন্স চার্লসের নাম ঘোষণা করেন। আর এরপরই ৬৯ বছর বয়সী এই রাজপুত্রের বিষয়ে সংস্থাটির মধ্যে একটি সাধারণ সম্মতি গড়ে ওঠে। বিশ্বাস করা হচ্ছে,  চার্লসের বিষয়ে বাংলাদেশেরও  কোনও আপত্তি নেই।

এবারই শেষবারের মতো কমনওয়েলথ সম্মেলনে অংশ নিলেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। বাকিংহাম প্রাসাদের এক অনুষ্ঠানে এবার রানি এলিজাবেথ বলেছেন, ‘আমি আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করি, কমনওয়েলথ ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য শান্তি ও ঐক্যের প্রতি প্রতিশ্রুতি অব্যাহত রাখবে। আর আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, প্রিন্স চার্লস এই গুরুত্বপূর্ণ কাজ এগিয়ে নিয়ে যাবে। যা আমার বাবা রাজা ষষ্ঠ জর্জ ১৯৪৯ সালে শুরু করেছিলেন।’

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নিয়ে গঠিত রাজনৈতিক সহযোগিতার অন্যতম পুরনো সংস্থা কমনওয়েলথ। প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে কোনও না কোনও সময়ে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের শাসনে থাকা দেশগুলোই এই সংস্থার সদস্য। বছরের পর বছর ধরে আফ্রিকা, আমেরিকা, এশিয়া, ইউরোপ ও ভূমধ্য সাগরীয় অঞ্চলের স্বাধীন দেশগুলো এতে যোগ দিয়েছে।

উইন্ডসোর ক্যাসেলের ওই প্রাণখোলা আলোচনার মধ্য দিয়ে ব্রিটেনে সপ্তাহব্যাপী আয়োজনের সমাপ্তি ঘটবে। গত সোমবার থেকে বিভিন্ন ফোরামে বাণিজ্য, নারী, তারুণ্য ও নাগরিক সমাজকে থিম হিসেবে নিয়ে আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সপ্তাহের শুরুতে নারী ফোরামে ‘ক্ষমতায়নে শিক্ষা’ শীর্ষক এক সেশনে ভাষণ দেন। ওই ভাষণে নারী শিক্ষায় নিজ দেশের অর্জন তুলে ধরেন তিনি। সেতুবন্ধন শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় তিনি বলেন, ‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে জাতিসংঘের স্বীকৃতির জন্য প্রয়োজনীয় সব অগ্রগতি অর্জিত হলেও সবার জন্য শিক্ষা আমাদের মূল লক্ষ্য হিসেবে বজায় থাকবে।’

পরে তিনি সদস্য দেশগুলোর রাষ্ট্রনেতাদের আনুষ্ঠানিক বৈঠকে অংশ নেন। ‘সম্মিলিত ভবিষ্যতের পথে’ থিমের ওপর অনুষ্ঠিত ওই বৈঠক বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শেষ হয়। ওই বৈঠক ছাড়াও পার্শ্ববৈঠকে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ৩০ মিনিটের এক বৈঠকে অংশ নেন। পার্শ্ববৈঠকে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার বিভিন্ন ক্ষেত্র নিয়ে দুই নেতা বিস্তারিত আলোচনা করেন। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের খবর অনুযায়ী, ওই আলোচনায় উন্নয়ন সহযোগিতার বিষয়ে দুই নেতা বিশেষভাবে আলোকপাত করেন।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেন, ‘ভারত-বাংলাদেশের এই বিস্তৃত আলোচনায় উন্নয়ন সহযোগিতা ছাড়াও পরস্পরের দেশে দুই নেতার সফরের কয়েকটি অমীমাংসিত বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।’

শুক্রবার (২০ এপ্রিল) বাকিংহাম প্রাসাদের আলোচনার পর সরকার প্রধানেরা একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করার কথা। ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগে নিজেদের অংশগ্রহণ নিয়েও একটি বিবৃতি দেওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

প্রতি দুই বছর পর পর সদস্যভুক্ত বিভিন্ন দেশে কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তী সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে, তা চলতি সম্মেলনের শেষে ঘোষণা করা হবে।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details