1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানিতে বিএনপি’র কর্মীসভা ‘বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার’ : এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা

ঐতিহ্যবাহী চেরি ফুল উৎসব জাপানে!

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ২০ মার্চ, ২০১৮
Check for details

চেরি ফুলের দেশ জাপান। ফুলে ঢাকা অপরূপ এক রাজ্য। মার্চের মাঝামাঝি থেকে এপ্রিল জুড়ে জাপানের সর্বত্র শুধু বিচিত্র চেরির সমাহার। এ দু’মাসে অন্য হাজারো ফুল ফুটলেও চেরি ফুল পুরো জাপানটাকে ঢেকে ফেলে। চলতি সপ্তাহে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হলো জাপানের সবচেয়ে জনপ্রিয় চেরি ফুল উৎসব।

উৎসব থাকবে এপ্রিল পর্যন্ত। সবসময়ই উৎসবের প্রথমদিকে টোকিও ও এর আশপাশের এলাকায় একসঙ্গে এ ফুল ফোটে। এবারও টোকিওতে সবার আগে ফুটতে শুরু করেছে ঐতিহ্যবাহী চেরি। জাপানের আবহাওয়া সংস্থা চেরি ফুলের মৌসুম শুরুর ঘোষণা করেছে, ফলে নগরবাসী চেরি গাছ ও ফুল সংক্রান্ত আইটেমগুলো নিয়ে মাতোয়ারা হয়ে উঠতে পারবেন।

চেরি ফুল ঘিরে জাপানিদের ‘হানামি’ উৎসব দেখার জন্য প্রতি বছর মার্চ-এপ্রিল মাসে লাখো পর্যটক ভিড় জমান জাপানে। এবারও পর্যটক আসা শুরু হয়েছে। জাপানিরাও এ ফুল ঘিরে উৎসবের নানান প্রস্তুতি নিয়েছে। অনেক জায়গায় উৎসব শুরু হয়েছে। তবে চলতি সপ্তাহে টোকিও সিটির প্রায় সর্বত্রই চেরি ফুল ফুটবে।

বিভিন্ন পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ফুল ফোটার সঙ্গে সঙ্গে এ উৎসব দেখা যাবে। ইতোমধ্যে টোকিও সিটির বিভিন্ন স্থানে এ উৎসব শুরু হয়েছে। টোকিও’র পার্ক, মাঠ, স্কুল, সড়কসহ সর্বত্র গোলাপি ও সাদা রঙে ছেয়ে থাকবে দু’সপ্তাহ। জাপানের আবহাওয়া সংস্থা বলেছে, এ বছর প্রথম চেরি ফুল গড় সময়ের ৯ দিন আগেই ফুটতে শুরু করেছে।

চেরি নিয়ে সারা বিশ্বেই চলে ব্যাপক উন্মাদনা। জাপানের জাতীয় ফুল বলে তারা এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে। প্রায় দেড় হাজার বছর ধরে জাপানিরা এই ফুল নিয়ে উৎসব পালন করে আসছে, যাকে ‘হানামি’ উৎসব বলা হয়। হানামি জাপানি শব্দ, এর অর্থ ফুল দেখা বা ফুলের সৌন্দর্য উপভোগ করা। অনিন্দ্য সুন্দর এ ফুলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে জাপানিরা এ উৎসবের আয়োজন করে। উৎসব পরিণত হয় মিলনমেলায়।

জাপানিজরা চেরিকে বলে সাকুরা। গুচ্ছবদ্ধ ফুলগুলো প্রধানত গোলাপি, সাদা ও লাল রঙের হয়। পাপড়ি ও ফুলের গড়ন বিচিত্র। এমন কোনো অঞ্চল নেই যেখানে চেরি ফুলের গাছ নেই। আশ্চর্য এক চেরি ফুলের দেশ জাপান!

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details