1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানিতে বিএনপি’র কর্মীসভা ‘বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার’ : এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা

ইন্টারনেটের মূল্য সংযোজন কর কমিয়ে ১০ শতাংশ হচ্ছে

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ২১ জুন, ২০১৮
বৈঠকের একপর্যায়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীরসহ অন্যান্যরা (ছবি: সংগৃহীত)
Check for details

জার্মান-বাংলা টুয়েন্টিফোর ডটকম: ইন্টারনেটের ওপর ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর) দিতে হয় ১৫ শতাংশ। এই হার কমিয়ে আনা হচ্ছে ১০ শতাংশে। বৃহস্পতিবার (২১ জুন) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ তথ্য জানালেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর।

দেশের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সাত সংগঠন (অ্যামটব, বিসিএস, বেসিস, বিসিএস, আইএসপিএবি, বাক্য ও ই-ক্যাব) বাজেট সংক্রান্ত দাবি নিয়ে আলোচনায় বসেছিল। বৈঠকে ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীরসহ আরও অনেকে।

২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ইন্টারনেটের ওপর ভ্যাটের বিষয়ে কোনও সুখবর ছিল না। অথচ এই সাত সংগঠন গত ৭-৮ বছর ইন্টারনেটের ওপর আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়ে আসছিল। বেসিস সভাপতি জানান, বৃহস্পতিবারের বৈঠকে ইন্টারনেটের ওপর থেকে ৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, ‘বৈঠকে বেসিসের পক্ষ থেকে একাধিক দাবি উত্থাপন করা হয়। এসব দাবির প্রতিফল দেখা যায়নি বাজেট প্রস্তাবনায়। দাবিগুলো শোনার পরে অর্থমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাই সংশোধিত প্রস্তাবগুলো অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন। ফলে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে একসঙ্গে একাধিক সুখবর পাওয়ার মতো সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।’

ইন্টারনেট থেকে ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর), শুল্ক ও সারচার্জ বাবদ সরকারের বছরে আয় হয় ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা। দেশের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সাত সংগঠন যৌথভাবে কর ও শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে আসছিল। বুধবার (২০ জুন) রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেও এই দাবি জানানো হয়।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details