1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মান বিএনপির হেছেন প্রাদেশিক কমিটির কর্মী সভা অনুষ্ঠিত জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব

আফগানিস্তানে এক বছরে ৯৫ সাংবাদিক নিহত

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ৪ মে, ২০১৯
গত বছর ব্যাপক আলোচিত হয়েছিল সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগির হত্যাকাণ্ড। ছবি: রয়টার্স
Check for details

আইএফজের তথ্য অনুযায়ী, গত বছর সাংবাদিকদের জন্য অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ দেশ ছিল আফগানিস্তান। কেবল আফগানিস্তানেই গত বছর ১৬ জন সাংবাদিক নিহত হন। এর মধ্যে রাজধানী কাবুলে একসঙ্গে নিহত হন নয়জন সাংবাদিক। বোমা হামলার খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে নিজেরাই প্রাণ হারান তাঁরা। যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডে ‘ক্যাপিটাল গেজেট’ পত্রিকা অফিসেও বন্দুকধারীদের হামলায় ঘটনাস্থলেই নিহত হন পাঁচ সাংবাদিক। এ ছাড়া মেক্সিকোতে ১১ জন, সিরিয়া ও ইয়েমেনে ৮ জন এবং ভারতে ৭ জন সাংবাদিক নিহত হন গত বছর।

২০১৮ সালের অন্যতম আলোচিত বিষয় ছিল সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগির হত্যাকাণ্ড। তুরস্কে সৌদি দূতাবাসের ভেতরে তাঁকে খুন করে লাশ গুম করে ফেলা হয়। খাসোগির এমন পরিণতির পেছনে সৌদি যুবরাজের হাত ছিল বলেও অভিযোগ রয়েছে।
শুধু হত্যা করা নয়, বছরজুড়ে অনেক সাংবাদিককে কারাবরণও করতে হয়েছে। কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টসের (সিপিজে) তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে ২৫০ জনের মতো সাংবাদিককে বন্দী করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে তুরস্কে সর্বোচ্চ ৬৮ জন, চীনে ৪৭ জন, মিসরে ২৫ জন এবং সৌদি আরব ও ইরিত্রিয়ায় ১৬ জন সাংবাদিককে বন্দী করা হয়েছে গত বছর।

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে অনেক সময় প্রাণটাই খোয়াতে হয় সাংবাদিকদের। পরিসংখ্যানেও মিলছে সেই প্রমাণ। কেবল ২০১৮ সালেই বিশ্বজুড়ে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৯৫ জন সাংবাদিক। বিশ্ব গণমাধ্যম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে বিশ্বজুড়ে সাংবাদিকদের সুরক্ষায় কাজ করা সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব জার্নালিস্টস (আইএফজে)।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে নিহত সাংবাদিকের সংখ্যা বেড়েছে বলে জানিয়েছে আইএফজে। এখন পর্যন্ত এক বছরে সবচেয়ে বেশি সাংবাদিক নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে ২০০৬ সালে। এক বছরে মোট ১৫৫ জন সাংবাদিক নিহত হন সেবার।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details