1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. adminmonir@germanbangla24.com : monir uzzaman : monir uzzaman
  3. fatama.ruma007@gmail.com : Fatama Rahman Ruma : Fatama Rahman
  4. anikbd@germanbangla24.com : SIDDIQUE ANIK : ANIK SIDDIQUE
  5. infi@germanbangla24.com : Hasan Imam Juwel : Hasan Imam Juwel
  6. rafid@germanbangla24.com : rafid :
  7. SaminRahman@germanbangla24.com : Samin Rahman : Samin Rahman
শিরোনাম :
জার্মানির মানহাইমে জমজমাট ঈদ পুনর্মিলনী ও গ্রিল পার্টি লেবাননে শাহ্জালাল প্রবাসী সংগঠনের দ্বশম বর্ষ পূর্তি উদযাপন ও সভাপতিকে বিদায়ী স্বংবর্ধনা করোনা টিকার প্রসঙ্গে ও করোনার তৃতীয় ঢেউ: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া রাষ্ট্রদূত, জার্মানি বাংলাদেশ জার্মান জাতীয়তাবাদী কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের বনভোজন অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে নিহত ২ জামালপুরে ‘বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’ এর মাক্স বিতরণ করোনা : সখীপুরে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা করোনা : সাতক্ষীরা পুলিশের মোটরসাইকেল র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ লেবানন বিএনপির সভাপতি বাবু, সম্পাদক আইমান, সাংগঠনিক হাবিব সখীপুরে ‘মুক্তিযুদ্ধের কবিতা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

আওয়ামী লীগের ওপর আস্থা রাখতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

জার্মানবাংলা২৪ রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ২৪ জুন, ২০১৮
Check for details

জার্মানবাংলাটুয়েন্টিফোরডটকম: আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এদেশের মানুষের সেবা করে যাচ্ছে। দেশের মানুষ আওয়ামী লীগের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস রেখেছে। মানুষ আওয়ামী লীগের ওপর যে আস্থা রেখেছে, তার সম্মান দিচ্ছে। সম্মান দিয়ে যাবো। আওয়ামী লীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার (২৩ জুন) জাতীয় সংসদে দেওয়া এক বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে এদেশের মানুষ রাষ্ট্রভাষা বাংলা পেয়েছিল, স্বাধীনতা পেয়েছে, উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে।’

আরও অনেক দূর যেতে যায় বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এখন দেশকে সেই জায়গায় নিয়ে যেতে পেরেছি যে স্বপ্ন জাতির পিতা দেখতেন। তবে, আমরা অনেক দূর যেতে চাই। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দিনবদলের সনদ দিয়েছিলাম। মানুষের দিনবদল হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগ গঠনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে দলের সভাপতি বলেন, ‘এ অঞ্চলের শোষিত বঞ্চিত ও দারিদ্র্যপীড়িত জনগণের ভাগ্যোন্নয়ন ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় ১৯৪৯ সালের ২৩জুন আওয়ামী লীগ গঠিত হয়। পরে ১৯৫৫ সালে অসাম্প্রদায়িক আওয়ামী লীগ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে মুসলিম কথাটি বাদ দেওয়া হয়। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে যেন সবাই এই প্রতিষ্ঠানের সদস্য হতে পারে, তার জন্য এটি করা হয়। দল গঠনের পর এ অঞ্চলের মানুষের আর্থসামাজিক মুক্তির জন্য আওয়ামী লীগ সংগ্রাম করে।’ তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগই একমাত্র সংগঠন, যার নীতি আছে, আর্দশ আছে। একটি দর্শন রয়েছে। স্বাধীনতার চেতনার স্বপ্ন দেখিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। স্বাধীনতা যুদ্ধের জন্য যা যা প্রয়োজন, তার সব প্রস্তুতি বঙ্গবন্ধু করে রেখেছিলেন। পরিবারের সদস্য হিসেবে তা আমি জানি। পাশাপাশি জনগণের ম্যান্ডেট নিতে নির্বাচনেও অংশ নিয়েছিলেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রদেশকে রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আইনকানুনসহ যা যা প্রয়োজন তা করে গেছেন। এখন যেখানেই হাত দেই দেখি তা বঙ্গবন্ধু করে গেছেন। যে রাজনৈতিক মাটিও মানুষের থেকে গড়ে ওঠে, সেই দলই পারে মানুষকে কিছু দিতে। বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন, এদেশের জনগণ যা পেয়েছে, তার সবই এসেছে আওয়ামী লীগের হাত ধরে।’

দেশের বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে সরকার প্রধান বলেন, ‘আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা অত্যন্ত উন্নত। শক্তিশালী অর্থনৈতিক অবস্থা আমরা সৃষ্টি করতে পেরেছি। আমাদের উন্নয়ন মু্ষ্টিমেয় গোষ্ঠীর জন্য নয়। আমাদের উন্নয়ন দেশের সকল মানুষের উন্নয়ন। আমরা পরিকল্পনা নিয়ে কাজ শুরু করেছিলাম বলেই দেশের মানুষ তার সুফল এখন পাচ্ছেন। বাংলাদেশ সাহায্যের জন্য হাত পেতে চলে এই কথা কেউ আর এখন বলে না।

শেয়ার করুন:
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফেসবুকে জার্মানবাংলা২৪

বিজ্ঞাপন

Check for details